Sunday, July 21, 2024
দেশ

টাকা লুঠ করতে পারছে না তাই একজোট হচ্ছে বিরোধীরা, কটাক্ষ মোদীর

ভুবনেশ্বর: ২০১৯ আসন্ন লোকসভা নির্বাচনের আগে চলছে বিজেপি বিরোধী জোট গঠন। মোদী বিরোধী দলগুলি ইতিমধ্যেই নিজেদের মধ্যে আসন সমঝোতাও করে ফেলেছে। অপরদিকে বিরোধীদের জোট গঠনকে কটাক্ষ করে মঙ্গলবার দেড় হাজার কোটি টাকার একাধিক প্রজেক্টের উদ্বোধনে ওড়িশায় গিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন, জনগণের টাকা লুঠ হওয়া আটকেছেন। তাই তাঁকে সরকার থেকে সরানোর চক্রান্ত চলছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, কংগ্রেস সরকারের আমলে মধ্যস্থতাকারীরা জনগণের টাকা লুঠ করত। তবে বিজেপি সরকার ক্ষমতায় আসার পর সেই রাস্তা বন্ধ হয়ে গিয়েছে। বিজেপি সরকার ৬ কোটি ভুয়ো নথি বাজেয়াপ্ত করেছে। রেশন কার্ড, এলপিজি সংযোগ ও পেনশনের টাকা পেতে এই ভুয়ো নথি ব্যবহার করা হত। তবে যাদের নাম নথিতে থাকত তাদের অস্তিত্ব খুঁজে পাওয়া যায়নি। এই ভাবে বছরের পর বছর ধরে জনগণের টাকা লুঠ করা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, কয়েকজন ব্যক্তির স্বার্থে আঘাত লাগায় তারা এখন দেশের ‘চৌকিদারকে’ সরাতে হাত মেলাচ্ছে। এমনকি তাঁর বিরুদ্ধে মিথ্যা নানা অভিযোগ আনা হচ্ছে বলেও জানান তিনি। মোদী বলেন, লোকসভা নির্বাচনের আগে বিরোধীদের কাছাকাছি আসাকে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে ‘ষড়যন্ত্র’। তিনি বলেন, দেশের বিভিন্ন প্রান্তের ষড়যন্ত্রকারীরা একজোট হচ্ছে। কিন্তু জগন্নাথভূমে দাঁড়িয়ে দেশবাসীকে আশ্বস্ত করে বলতে চাই, জনগণের টাকা লুঠ হওয়া বন্ধ না হওয়া পর্যন্ত ‘চৌকিদার’ বিশ্রাম নেবে না।