Thursday, May 23, 2024
আন্তর্জাতিক

বাংলাদেশের কুড়িগ্রামে মন্দিরে হামলা, রাধাকৃষ্ণের মূর্তি ভাংচুর, জমি দখলের চেষ্টা, আটক ১

কলকাতা ট্রিবিউন ডেস্ক: বাংলাদেশের কুড়িগ্রাম জেলার রাজারহাট উপজেলার ছিনাই ইউনিয়নের মীরের বাড়ি গ্রামে এক মন্দিরে হামলা চালিয়ে রাধাকৃষ্ণের মূর্তি ভাংচুর করে নিয়ে যাওয়ার ঘটনায় পুলিশ যুবরাজ মিয়া (৫২) নামের এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে। গত ২৯শে এপ্রিল ২০২৪ সোমবার ঘটনাটি ঘটেছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসীরা জানান, ওই গ্রামের সুবল চন্দ্র রায়ের পারিবারিক মন্দিরে একদল দূর্বৃত্ত দেশীয় অস্ত্রে-সস্ত্রে সর্জ্জিত হয়ে এসে হামলা ও রাধাকৃষ্ণ প্রতিমা ভাংচুর করে প্রামান লোপাটের জন্য প্রতিমাটি নিয়ে চলে যায়। কিন্তু প্রতিমার ভাংগা কিছু অংশ ফেলে যায়। এ সময় মন্দিরের ১৮শতক জমি অবৈধভাবে দখল করে টিন দিয়ে ঘেরাও করে।

এলাকাবাসীরা ৯৯৯ এ ফোন করলে রাজারহাট থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘটনার সত্যত্য পেয়ে যুবরাজ মিয়া (৫২) কে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে। গ্রেফতারকৃত যুবরাজ লালমনিরহাট সদরের মীরের বাড়ি গ্রামের মৃত রহিমউল্ল্যাহর ছেলে। এ ঘটনায় রাজারহাট থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। মামলা নম্বর ২৫। 

সুবল চন্দ্র বলেন, ওই মন্দিরে নিয়মিত রাধাকৃষ্ণ পূজা হয়। জমিটি আমার বড়ভাই সুবাস চন্দ্রের কাছ থেকে ক্রয় করেছি। সে জমি হঠাৎ করে যুবরাজ দলবল নিয়ে এসে দখল হামলা চালিয়ে দখল করে। 

এ বিষয়ে রাজারহাট থানার অফিসার ইনচার্জ মোস্তাফিজুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বিবাদমান জমি যুবরাজের আদালতের ডিক্রি ছিল। আদালত বিষয়টি স্থানীয়ভাবে কিংবা কমিশন করে নিস্পত্তি করার কথা বলেছে। কিন্তু যুবরাজ তা না করে বেআইনিভাবে দখল নেয়ার চেষ্টা চালায়। মন্দিরের মূর্তি ভাংচুরের বিষয়টি এলাকার লোকজন স্বাক্ষ্য দিয়েছে। এলাকার হিন্দুধর্মাবলম্বীরা যুগল প্রতিমা ফেরত চেয়ে ঘটনার সাথে জড়িতদের শাস্তির দাবী জানিয়েছেন। ~ ডেইলি অবজারভার