Wednesday, July 24, 2024
বিনোদন

হিন্দুদের ভাবাবেগে আঘাত, থানায় অভিযোগ দায়ের হতেই নিঃশর্ত ক্ষমা চাইল ‘তাণ্ডব’ টিম

মুম্বাই: গত ১৫ জানুয়ারি অ্যামাজন প্রাইমে মুক্তি পেয়েছে তাণ্ডব ওয়েব সিরিজ (Tandav web series)। যা নিয়ে বিতর্ক তুঙ্গে। ওই ওয়েব সিরিজে হিন্দু দেবদেবীদের অপমান করে হিন্দুদের ভাবাবেগে আঘাত করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগ দায়ের হয়েছে থানায়। হস্তক্ষেপ করেছে কেন্দ্রীয় সরকারও।অ্যামাজন প্রাইমের কাছে জবাব চেয়েছে কেন্দ্র। তীব্র চাপের মুখে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইল ‘তাণ্ডব’ টিম।

তাণ্ডব কর্তৃপক্ষের বক্তব্য, এই ওয়েব সিরিজ কাল্পনিক। কোনও ধর্মের বা কারও ভাবাবেগে আঘাত করার কোনও উদ্দেশ্য তাদের ছিল না। বিবৃতিতে তারা বলেছে, আমরা লক্ষ্য করছি তাণ্ডব ওয়েব সিরিজ নিয়ে অনেকেই প্রতিক্রিয়া দিচ্ছেন। তথ্য সম্প্রচার মন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে, একাধিক পিটিশন জমা পড়েছে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকরের সঙ্গেও কথা হয়েছে। অভিযোগ তোলা হয়েছে, তাণ্ডব ওয়েব সিরিজের একাধিক দৃশ্য মানুষের ধর্মীয় আবেগে আঘাত করেছে।

তাণ্ডব কর্তৃপক্ষ বলেছে, কোনও ব্যক্তি, জাতি, শ্রেণি, ধর্ম, রাজনৈতিক দল, জীবিত বা মৃত ব্যক্তিকে আঘাত করা তাদের উদ্দেশ্য নয়। তবুও যদি কারও আবেগে আঘাত লেগে থাকে তাহলে নিঃশর্ত ক্ষমা চাইছে তাণ্ডবের কলাকুশলীরা। উল্লেখ্য, তাণ্ডব ওয়েব সিরিজে সইফ আলি খানও অভিনয় করেছেন।

বিজেপি সাংসদ মনোজ কোটাক ইতিমধ্যেই মুম্বাইয়ের ঘাটকোপার থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। তাঁর অভিযোগ, তাণ্ডব ওয়েব সিরিজে হিন্দু দেবদেবীদের নিয়ে উপহাস করা হয়েছে। এভাবে হিন্দুদের আদর্শে আঘাত করা উচিত হয়নি। তাই তাণ্ডব ওয়েব সিরিজ বন্ধ করার জন্য কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকরের কাছে চিঠি লিখেছেন তিনি।

তবে কি দেখানো হয়েছে তাণ্ডব ওয়েব সিরিজে?

সিরিজের প্রথম পর্বটি নিয়েই তীব্র বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে। ওই পর্বে দেখানো হয়েছে, অভিনেতা মহম্মদ জিশান আয়ুব বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াতে গিয়ে ভগবান শিবের প্রসঙ্গ তোলেন। তিনি জানতে চান, তোমরা কার থেকে স্বাধীনতা চাও? এরপরেই দেখা যায় পড়ুয়ারা স্টেজে উঠেই ‘নারায়ণ নারায়ণ’ ধ্বনি ওঠে। এই অংশটি নিয়েই বিতর্ক তৈরি হয়েছে।

‘তাণ্ডব’ টিম নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ার পরেও বিতর্ক থামেনি। অভিযোগ, ওয়েব সিরিজগুলিতে উদ্যাম যৌনতা দেখানো হয়। হিংসা, মাদক, ঘৃণা এবং হিন্দুধর্মকেই বারবার অবমাননা করা হয়। তাই শুধু তাণ্ডব নয়, গোটা বলিউডকেই এই ধরনের ওয়েব সিরিজ কিংবা সিনেমা তৈরি থেকে বিরত থাকার হুমকি দেওয়া হয়েছে।