Friday, July 19, 2024
রাজ্য​

ফের মুখ পুড়লো বাংলার, শৌচালয় নির্মাণে পিছিয়ে পশ্চিমবঙ্গ

কলকাতা ট্রিবিউন ডেস্ক: স্বচ্ছ ভারত প্রকল্পে ফের মুখ পুড়লো বাংলার। পঞ্চায়েত দফতরের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, পশ্চিমবঙ্গের ৪০,৬০০টি গ্রামের মধ্যে ‘ওডিএফ-প্লাস’ তকমা পেয়েছে ১৮,১২৯ টি গ্রাম। অর্থাৎ, অধিকাংশ গ্রামেই এখনও শৌচালয় নির্মাণ করা হয়নি।  প্রায় আট মাস আগে এই বিষয়ে সতর্ক করেছিল কেন্দ্রীয় সরকার। এর পরে, রাজ্য সচিবালয় জেলা প্রশাসনকে স্বচ্ছ ভারত মিশন স্কিম (গ্রামীণ) এর কাজ জোরদার করার জন্য নির্দেশ দেয়।

স্বচ্ছ ভারত মিশন সহ বেশ কিছু কেন্দ্রীয় প্রকল্প অর্থের কোনো অভাবও নেই। তবুও এই প্রকল্পে বাংলার ব্যর্থতা চোখে পড়েছে। চলতি অর্থবছরে স্বচ্ছ ভারত মিশন প্রকল্পে কেন্দ্রীয় সরকার ৭১৯২ কোটি টাকা বরাদ্দ করেছে। ২০২০-২১ অর্থবর্ষ থেকে শুরু হয় স্বচ্ছ ভারত মিশনের দ্বিতীয় পর্যায়ের কাজ। এটি চলবে ২০২৪-২৫ অর্থবর্ষ পর্যন্ত।

এদিকে, পশ্চিমবঙ্গের পূর্ব মেদিনীপুর জেলা সেরার তালিকায় স্থান পেয়েছে। এই তালিকায় বাংলার আর কোনও জেলার নাম নেই। পূর্ব মেদিনীপুরে ২৯৮৮টি গ্রামের মধ্যে ২৯২৯ গ্রাম ‘ওডিএফ-প্লাস’ স্বীকৃতি পেয়েছে।

আধিকারিকরা জানিয়েছেন, কেন্দ্র স্বচ্ছ ভারত মিশন প্রকল্পের অধীনে 2 অক্টোবর, 2019 এর মধ্যে সারা দেশে গ্রামীণ পরিবারগুলিতে টয়লেট তৈরি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এর পাশাপাশি প্রতিটি গ্রামে কঠিন ও তরল বর্জ্য ব্যবস্থাপনার অবকাঠামোও গড়ে তোলা হবে। এ বিষয়টি মাথায় রেখে প্রকল্পের দ্বিতীয় পর্যায়ের কাজ শুরু হয়েছে।

প্রশাসনিক ভাষায় একে ODF-Plus বলা হয়। কেন্দ্র তখনই একটি গ্রামকে মডেল হিসাবে ঘোষণা করে যখন এই উভয় ব্যবস্থাপনায় কমপক্ষে 80 শতাংশ স্বচ্ছতা থাকে। পঞ্চায়েত বিভাগের মতে, রাজ্যে এরকম 45টি মডেল গ্রাম রয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে ফের সব জেলা প্রশাসনকে সতর্ক করেছেন রাজ্য সচিবালয়ের শীর্ষ আধিকারিক।

সম্প্রতি অনুষ্ঠিত বৈঠকে প্রতিটি জেলা ম্যাজিস্ট্রেটকে কাজের গতি বাড়াতে বার্তা দেওয়া হয়েছে। প্রশাসনিক পর্যবেক্ষকরা মনে করেন যে অগ্রগতির অভাবে, এই প্রকল্পেও যদি কেন্দ্রীয় বরাদ্দ অনিয়মিত হয় তবে তা রাজ্য সরকারের জন্য সুখকর হবে না।