Friday, July 12, 2024
দেশ

প্রটোকল ভেঙে নেতানিয়াহুকে স্বাগত জানালেন মোদী

নয়াদিল্লি: ছয় দিনের সফরে ভারতে এসেছেন ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। রবিবার দুপুরে দিল্লির ইন্দিরা গান্ধী আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে নামেন নেতানিয়াহু। সঙ্গে ছিলেন তাঁর স্ত্রী সারা ও ১৩০ সদস্যের বিশাল প্রতিনিধি দল।

এদিন প্রোটোকল ভেঙে দিল্লি বিমানবন্দরে গিয়ে ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী ও তাঁর স্ত্রী সারা-কে স্বাগত জানান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। একপর্যায়ে বিমান থেকে নামার পর নেহানিয়াহু-কে জড়িয়ে ধরেন মোদী। দুইজনে কিছুক্ষণ কথা বলেন, পরে গণমাধ্যমের সামনে দুইজনেই বন্ধুত্বের মুষ্টিবদ্ধ হাত তুলে ধরেন।

ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানানোর কিছু পরেই টুইট করে আলিঙ্গনের ছবি পোস্ট করে মোদী জানান ‘আমার বন্ধু প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহুকে ভারতে স্বাগত। আপনার এই ভারত সফর ঐতিহাসিক ও স্পেশাল। এটা আমাদের দুই দেশের নিকট বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ককে আরও শক্তশালী করবে’।

তার পরপরই নেতানিয়াহুর টুইট, “আমরা ভারতে পৌঁছেছি। উষ্ণ অভ্যর্থনার জন্য বন্ধু নরেন্দ্র মোদীকে ধন্যবাদ।”

এর আগে ভারতে পা রাখার পরই ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রীও হিব্রু ও ইংরেজিতে টুইট করে জানান ‘আমরা ভারতে পা রেখেছি।  আমার ভাল বন্ধু নরেন্দ্র মোদি-কে এই উষ্ণ অভিনন্দনের জন্য ধন্যবাদ জানাই’।

দীর্ঘ ১৫ বছর পর এই প্রথম কোন ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী ভারত সফরে এলেন। তাঁর সঙ্গেই সম্ভবত এই প্রথম সেদেশ থেকে একটি বড় ব্যবসায়িক প্রতিনিধি দলও ভারতে এল। এর আগে ২০০৩ সালে ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী হিসাবে অ্যারিয়েল স্যারন ভারত সফর করেন।

সফর শেষে দেশে ফেরার আগে ভারতের সঙ্গে নানা ব্যবসায়িক চুক্তি স্বাক্ষরের প্রতিশ্রুতি আগেই দিয়ে রেখেছেন নেতানিয়াহু।

নেতানিয়াহু  বলেন, “বিশ্বশক্তির গুরুত্বপূর্ণ অংশীদার ভারতের সঙ্গে ইসরায়েলের বন্ধুত্ব আরও দৃঢ় করতে আমরা কাজ করছি। তারা আমাদের নিরাপত্তা, অর্থনীতি, বাণিজ্য এবং পর্যটনসহ আরও অনেক অনেক ক্ষেত্রে অগ্রগতিতে সাহায্য করবে। যা ইসরায়েলের জন্য দারুণ আশীর্বাদ।”

সফরের শুরুতে নেতানিয়াহু ও মোদী দিল্লির তিন মূর্তি  মেমোরিয়ালে গিয়ে প্রথম বিশ্বযুদ্ধে হাইফায় নিহত সেনাদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। তিন মূর্তি চকের নাম এদিন আনুষ্ঠানিকভাবে বদলে রাখা হয় ‘তিন মূর্তি হাইফা চক’।

ছয় দিনের এই ভারত সফরে একাধিক কর্মসূচীতে অংশ নেবেন নেতানিয়াহু। আমেদাবাদ, মুম্বাই সফরে যাবেন তিনি। আগ্রায় গিয়ে তাজমহলও পরিদর্শন করবেন ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী। ১৫ জানুয়ারি দিল্লিতে ইন্ডিয়া-ইসরায়েল সিইও ফোরামে অংশ নেবেন। দেখা করবেন ভারতের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ’এর সাথে। আগামী ১৬ জানুয়ারি দিল্লির তাজ প্যালেসে তৃতীয় ‘রাইসিনা ডায়লগ’এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানেও উপস্থিত থাকবেন দুই প্রধানমন্ত্রী। তিন দিন ধরে চলা ওই অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা, ইন্দোনেশিয়া, অষ্ট্রেলিয়া, রাশিয়া, সিঙ্গাপুর, মরিশাস, পোল্যান্ড, হাঙ্গেরি, ইরান সহ একাধিক দেশের প্রতিনিধিরা অংশ নেবেন।