Sunday, July 21, 2024
রাজ্য​

সিপিএম ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিলেন দুবারের বিধায়ক কানাই মন্ডল

বহরমপুরঃ ফের বড়সড় ধাক্কা বাম দুর্গে। তৃণমূলে যোগ দিলেন সিপিআইএমের দুবারের বিধায়ক কানাই মন্ডল। রবিবার নবগ্রামের রসুলপুর স্কুল ময়দানে জনসভায় কানাই মন্ডলের হাতে তৃণমূলের পতাকা তুলে দেন পরিবহণমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। কানাই চন্দ্র মণ্ডল ছাড়াও শাসকদলে যোগ দেন বেলডাঙা পুরসভার ১১ নম্বর ওয়ার্ডের বিজেপি কাউন্সিলার অনিতা সাহা।

তৃণমূলে যোগ দিয়েই দলের বিরুদ্ধে বিষদগার উগরে দিলেন কানাই মন্ডল। কানাইবাবু বলেন, আমি মানুষের ভোটে জিতেছি, মানুষের জন্য কাজ করতে এবং উন্নয়নের জন্য সরকারের সঙ্গে থাকা দরকার। মানুষের উন্নয়নের স্বার্থেই দল বদলের এই সিদ্ধান্ত। কানাইবাবুর তৃণমূলে যোগদানের ফলে নিঃসন্দেহে অধীর-গড় মুর্শিদাবাদে আরও শক্তিশালী হল তৃণমূল। যার ফলে এই মুহূর্তে মুর্শিদাবাদের যতগুলি বিধানসভা কেন্দ্র আছে তাতে বিধায়কদের সংখ্যা হয়ে দাঁড়াল তৃণমূল কংগ্রেস ১১, কংগ্রেস ৮ ও সিপিএম ৩।

যদিও মুর্শিদাবাদ জেলা সিপিএম সম্পাদক মৃগাঙ্ক ভট্টাচার্য বলেছেন, কানাই দলের জেলা কমিটির সদস্য ছিলেন, জেলা  কৃষকসভার নেতা ছিলেন। এখন, ধান্দাবাজি করতে তৃণমূলে যোগ দিলেন! তিনি বলেন, দলের সঙ্গে ‘বিশ্বাসঘাতকতা’র জন্য দলের প্রাথমিক সদস্য পদ থেকে তাঁকে এ দিনই বহিষ্কার করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, কানাই মন্ডল দীর্ঘদিন ধরে বাম রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিলেন। সংগঠনকে মজবুত রাখতেও যথেষ্ট দায়িত্ববান ছিলেন তিনি। দীর্ঘদিন কৃষক আন্দোলনের সঙ্গেও যুক্ত ছিলেন। তবে মাস দুয়েক থেকে তৃণমূলের সঙ্গে তাঁর ঘনিষ্ঠতা শুরু হয়। অবশেষে তিনি এদিন আনুষ্ঠানিকভাবে তৃণমূলে যোগ দিলেন। কানাইবাবুর দল ত্যাগে অধীর-গড় মুর্শিদাবাদে অনেকটাই সিপিএমের পায়ের তলার মাটি হালকা হল বলে মনে করছেন রাজনৈতিক মহলের একাংশ।