Wednesday, May 29, 2024
জীবনযাপন

মালয়েশিয়ায় বিশ্বের সবচেয়ে বড় বাটু গুহা মন্দির

মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুর থেকে প্রায় ১৩ কিলোমিটার (৮ মাইল) উত্তরে অবস্থিত একটি চুনাপাথরের পাহাড়, যা গোম্বাক জেলার পুরাতন গুহা মন্দির। যেখানে পর্যাক্রমকি গুহা রয়েছে।

বাটু গুহা ওরফে শ্রী শুব্রমানিয়ার মন্দির হলো প্রভু মুরুগান-এর প্রতি উৎসর্গীকৃত হিন্দু মঠ। মালয়েশিয়ার সেলাঙ্গোর রাজ্যে অবস্থিত মন্দিরটি একটি প্রতিকী পর্যটন গন্তব্যস্থল। গুহাগুলি সূঙ্গাই বাটু বা বাটু নদীর নামানুসারে নামকরণ করা হয়েছিল। 

এটা নথিভুক্ত করা হয়েছে যে তেমূয়ান লোকেরা(ওরাং আসলি উপজাতি)শরণার্থী হিসাবে এই গুহার কিছু অংশ প্রবেশপথ হিসাবে ব্যবহার করত। বাটু কেভসের বয়স আনুমানিক ৪০ কোটি বছর। দক্ষিণ ভারতীয় ব্যবসায়ী কে.থাম্বুস্বামী পিল্লাই এই মন্দিরের প্রতিষ্ঠাতা। বাটু কেভসের মূল আকরসন গুহা।

তিনটি বৃহদাকারের এবং বেশ কয়েকটি ক্ষুদ্রাকারের গুহা রয়েছে। সবচেয়ে বড়োটির নাম মন্দির গুহা। এর রয়েছে ১০০ মিটার উঁচু সিলিং। পূণ্যার্থীদের সে মন্দিরে পৌঁছাতে ২৭২টি সিড়ি বেয়ে উঠতে হয়।

বাটুর চুনাপাথরের গুহাগুলি ভূ-পৃষ্ঠ থেকে প্রায় ৪০০ ফুট উচ্চে নির্ধারিত রয়েছে। এটি মনে করা হয় যে, এই গুহাগুলির চুনাপাথর প্রায় ৪ কোটি বছরের প্রাচীন। 

১৪০-ফুট-উচ্চ প্রভু মুরুগানের মনোরম এক মূর্তি সিঁড়ির ডানদিকে অবস্থিত রয়েছে। মূর্তিটি ২০০৬ সালের ২৯-শে জানুয়ারি স্থাপিত হয়েছিল। প্রায় ১৫৫০ ঘন মিটার কংক্রিট, ৩০০ লিটার সোনালী রং এবং ২৫০ টন ইস্পাত দন্ড এই বিরাট মূর্তিটি নির্মাণ করতে ব্যবহার করা হয়েছে।

সংগ্রাম দত্ত