Monday, May 27, 2024
জীবনযাপন

পিরিয়ডস আর নরমাল, শোয়িং দেম শুড বি টু

স্যানিটরি ন্যাপকিনের বিজ্ঞাপনে এই প্রথম পিরিয়ড বা রজস্রাবের রক্ত ব্যবহার করল বডিফর্ম। এই বিজ্ঞাপনটির স্লোগান হলো, পিরিয়ডস আর নরমাল, শোয়িং দেম শুড বি টু। অর্থাৎ পিরিয়ডের মতো সাধারণ একটা ব্যাপার নিয়ে আসলে লুকোছাপা করার কিছু নেই।

বডিফর্ম ব্র্যান্ডের দাবি, মাসের বিশেষ সময়টায় নারীর জন্য প্রয়োজনীয় পণ্য তারা তৈরি করেছে বটে। কিন্তু এর পাশাপাশি মানুষকে পিরিয়ডের ব্যাপারে সঠিক তথ্যটাও জানাতে চাইছে তারা। তাদের সমীক্ষায় ৭৪ শতাংশ মহিলা জানিয়েছেন, রজস্রাবের বিজ্ঞাপনে আসল রক্ত দেখতে চান তাঁরা। মাসিক হওয়াটা নারীর জন্য একদমই নিত্যনৈমিত্তিক একটা ব্যাপার, কিন্তু বেশিরভাগ মানুষ ভয়ংকর নিষিদ্ধ একটা ব্যাপার মনে করে এটাকে! ভাবে এটা নিয়ে কথা বলাই যাবে না! এই ধারণা ভাংতেই একটি পদক্ষেপ তাদের এই বিজ্ঞাপন।

বডিফর্মের মার্কেটিং ম্যানেজার ট্রেসি ব্যাক্সটার কসমোপলিটানকে জানান, “আমরা পিরিয়ড নিয়ে সমাজের কুসংস্কার এবং নেতিবাচক মনোভাব দূর করতে চাই, যেন বর্তমানে এবং ভবিষ্যতেও যে কেউ পিরিয়ড নিয়ে নিঃসংকোচে আলোচনা করতে পারে।”

বডিফর্মের একটি বিজ্ঞাপনে দেখানো হয়, রক্তাক্ত অবস্থাতেও এগিয়ে চলছেন নারী ক্রীড়াবিদেরা। ‘ডোন্ট লেট ইওর পিরিয়ড স্টপ ইউ’ এই ছিল তার স্লোগান। তাদের নতুন বিজ্ঞাপনটি হলো “ব্লাড নরমাল”, যেখানে দেখানো হয় একজন পুরুষ তার পরিচিত কোনো নারীর জন্য কিনছেন স্যানিটারি ন্যাপকিন, আর এর শুরুতেই দেখানো হয় নীল তরলের পরিবর্তে লাল তরল ঢেলে দেওয়া হচ্ছে একটি প্যাডে। তার পরের দৃশ্যে সুইমিং পুলের জলে স্যানিটরি ন্যাপকিন আকৃতির একটি গদিতে শুয়ে রয়েছেন এক তরুণী। এর পরের দৃশ্যে স্নানরতা এক মহিলার পা বেয়ে নামছে রজস্রাবের রক্ত।

এই বিজ্ঞাপনটির স্লোগান হলো, পিরিয়ডস আর নরমাল, শোয়িং দেম শুড বি টু। অর্থাৎ, ”রজস্রাব স্বাভাবিক ঘটনা। তাকে দেখানো উচিত স্বাভাবিক ভাবেই।”

প্রসঙ্গত, প্রতিটি নারীর জন্য পিরিয়ড বা রজস্রাব খুবই সাধারণ একটি শারীরবৃত্তীয় প্রক্রিয়া। প্রতি মাসে সঠিক সময়ে মাসিক শুরু হওয়ার মাধ্যমে নারীর শারীরিক সুস্থতাও নিশ্চিত হয়।