Monday, May 20, 2024
দেশ

উত্তরপ্রদেশে ১০টি রামলীলা ময়দান তৈরির ঘোষণা যোগীর

লখনউ: রাম মন্দির ইস্যুতে লোকসভা নির্বাচনের আগে চাপে বিজেপি সরকার। তবে ভোটের আগে চাপ কমাতে নতুন কৌশল বিজেপির। উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ রাজ্যের ১০টি রামলীলা ময়দান ঢেলে সাজানোর ঘোষণা দিয়েছেন। ইতিমধ্যেই রাজ্যের দশটি জেলার জেলাশাসকের কাছে যোগী সরকারের নির্দেশ পৌঁছে গিয়েছে। যাতে অবিলম্বে রামলীলা ময়দান তৈরির কাজ শুরু হয়।

বিভিন্ন জেলায় এই মর্মে কমিটিও গঠন করা হয়েছে। তাতে জেলাশাসক, অতিরিক্ত জেলাশাসক, পর্যটন ও সংষ্কৃতি দপ্তরের কর্মকর্তা রয়েছেন। সেই কমিটি রাজ্য সরকারকে রিপোর্ট দেবে। রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় ইতিমধ্যে রামলীলা ময়দান রয়েছে। তবে যে সমস্ত জেলায় তা নেই, সেখানে জমি চিহ্নিত করে দেওয়াল তোলা হবে। সেই দেওয়ালে রামায়নের নানা কাহিনি বর্ণিত থাকবে। প্রতিটি রামলীলা ময়দানের মূল ফটক থাকবে। সব ময়দানে খাবার জল ও বিদ্যুতের ব্যবস্থা করা হবে।

অযোধ্যায় রাম মন্দির নির্মাণে চাপে রয়েছে গেরুয়া শিবির। বিভিন্ন হিন্দু সংগঠন ২০১৯  লোকসভা ভোটের আগে বিতর্কিত জমিতে অবিলম্বে রাম মন্দির তৈরির চাপ দিচ্ছে। বিজেপিও সেই পথের শরিক। সম্প্রতি বিজেপি সাংসদ সুরেন্দ্র সিং হুঁশিয়ারি দিয়েছেন, সরকার না পারলে আমরা অযোধ্যায় রাম মন্দির গড়বই। এ জন্য আইন ভাঙতেও আমরা পিছপা হব না। যে কোনও মূল্যে অযোধ্যায় রাম মন্দির হবেই।

বিশ্ব হিন্দু পরিষদও মন্দির তৈরীর জন্য অবিলম্বে অধ্যাদেশ জারির দাবি জানিয়েছে। নাগপুরে হুংকার সভায় সংঘ প্রধান মোহন ভাগবতও দাবি তোলেন, মন্দির নির্মাণের জন্য মোদী সরকারের উচিত দ্রুত আইন করা। এদিকে বিশ্ব বিন্দু পরিষদের সাধারণ সম্পাদক চম্পত রাইয়ের দাবি, অযোধ‌্যার বিতর্কিত জমির কোনও ভাগাভাগি মানা হবে না। পুরো জমিতেই রাম মন্দির গড়ে তোলা হবে।