Sunday, June 23, 2024
কলকাতা

ক্ষমতায় এলে দেশজুড়ে বিনামূল্যে রেশন: মমতা

কলকাতা: ২১ জুলাই শহিদ দিবসের মঞ্চ থেকে দেশজুড়ে রেশন দেওয়ার পক্ষে সওয়াল করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, ২০২৪ সালে আমাদের ফ্রন্ট ক্ষমতায় এলে দেশজুড়ে রেশন বিনামূল্যে দেওয়া হবে। নিখরচায় চিকিৎসা পরিষেবা পাবে দেশবাসী। গুজরাট নয়, বাংলাই গোটা দেশের মডেল।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ভারত উন্নয়ন চায়। ভারত মজবুত অর্থনীতি চায়। ভারত কৃষক, শিশু, মহিলা, দরিদ্রদের উন্নয়ন চায়। বিজেপি কিছু করছে না। কটা রাজ্যে বিনামূল্যে রেশন দেন প্রধানমন্ত্রী? আমাদের জোট ক্ষমতায় এলে দেশজুড়ে বিনামূল্যে রেশন দেওয়া হবে।

দেশের চিকিৎসা পরিষেবা নিয়ে প্রশ্ন তুলে বাংলায় মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ফ্রন্ট ক্ষমতায় এলে বিনা পয়সায় চিকিৎসা পরিষেবা মিলবে।সাধারণ মানুষের চাহিদা অগ্রাধিকার পাবে।

বিজেপিকে করোনাভাইরাসের চেয়েও বিপজ্জনক ভাইরাস বলেও কটাক্ষ করেন মমতা। তিনি বলেন, একটা খেলা শেষ হয়েছে, আবার খেলা হবে। যতদিন না বিজেপিকে দেশ থেকে বিদায় না করতে পারছি ততদিন রাজ্যে রাজ্যে খেলা হবে। সমস্ত জায়গায় খেলা হবে। ১৬ আগস্ট খেলা হবে দিবস হিসেবে পালিত হবে।

মমতা জানান, বাংলার মানুষকে বিনামূল্যে রেশন দেওয়া হয়। বিনামূল্যে চিকিৎসা পরিষেবা দেওয়া হয়। আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প নয়, স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পের আওতায় প্রতিটি পরিবারকে বছরে ৫ লাখ টাকা করে টাকা দেওয়া। সরকারি হাসপাতালগুলোতে বিনামূল্যে চিকিৎসা পরিষেবা দেওয়া হয়।

মমতা বলেন, রাজ্যে পড়ুয়াদের জন্য ১০ লাখ টাকার ক্রেডিট কার্ড চালু করা হয়েছে। তপশিলি জাতির মহিলাদের প্রতি মাসে ১ হাজার করে দেওয়া হচ্ছে। জেনারেল কাস্টের মহিলারা পাচ্ছেন ৫০০ টাকা করে। কন্যাশ্রী প্রকল্প সারা বিশ্বে এক নম্বর হয়েছে। এক একর জমির জন্য চাষীদের আমরা ১০ হাজার টাকা করে দিচ্ছি। এক কাঠা জমির জন্যে ৪ হাজার টাকা দিচ্ছি। জমির মিউটেশন একদম ফ্রি।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, রাজ্যে কেউ মারা গেলে, শেষকৃত্যের জন্য ২ হাজার টাকা দেওয়া হয়। রূপশ্রী প্রকল্পে  বিয়ের জন্য মেয়েদের ২৫ হাজার দেওয়া হয়। মাটিসৃষ্টি, খাদ্যসাথী, সবুজশ্রী, সমব্যথী, আনন্দধারা, দুয়ারে সরকার, পাড়ায় পাড়ায় সমাধান প্রকল্প আছে। জনগণের জন্য কাজ করি আমরা। ই-কমার্স থেকে স্মল স্কেল ইন্ডাস্ট্রিতে পশ্চিমবঙ্গ এক নম্বর। ১০০ দিনের কাজে আমরা এক নম্বর। বাংলায় দারিদ্রতা কমেছে ৪০ শতাংশ বলেও দাবি করেন মমতা।