Friday, June 14, 2024
দেশ

এই প্রথম আজাদ হিন্দ ফৌজের সদস্যরা যোগ দিলেন প্রজাতন্ত্র দিবসের প্যারাডে

নয়াদিল্লি: এক সময় দেশকে স্বাধীন করার জন্য নিজেদের সর্বস্ব পণ করে অস্ত্র ধরেছিলেন যাঁরা, স্বাধীন দেশের ৭০তম প্রজাতন্ত্র দিবসের কুচকাওয়াজে অবশেষে স্থান পেলেন সেই আজাদ হিন্দ বাহিনীর সদস্যরা। এই প্রথম প্রজাতন্ত্র দিবসের প্যারেডে যোগ দিলেন নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর আজাদ হিন্দ ফৌজের চার সেনাকর্মী। হুড খোলা জিপে বসে দিল্লির রাজপথে সেনাবাহিনীর সঙ্গে পরিক্রমা করেন এই চার বৃদ্ধ স্বাধীনতা সংগ্রামী।

আজাদ হিন্দ বাহিনীর এই চার সেনা সদস্যদের নাম হলো পরমানন্দ, ললিত রাম, হীরা সিংহ ও ভাগমল। চারজনেরই বয়স ৯৭ থেকে ১০০ বছরের মধ্যে। এই প্রাক্তন সেনারা সবাই দিল্লি ও তার আশপাশের এলাকায় থাকেন। এঁদের মধ্যে সবচেয়ে প্রবীণ ১০০ বছরের ভাগমল। ১৯৪২-এ তিনি নেতাজির আইএনএ-তে যোগ দেন। বর্তমানে হরিয়ানার মানেসরে থাকেন ভাগমল। বাকি তিনজন হলেন পাঁচকুলার বাসিন্দা ৯৮ বছরের ললিত রাম, নার্নাউলের বাসিন্দা ৯৭ বছরের হীরা সিং এবং চণ্ডীগড়ের বাসিন্দা পরমানন্দ যাদব।

গত মঙ্গলবার এই প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুকে বিশেষ সম্মান জানাতেই এই উদ্যোগ নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। উল্লেখ্য, কিছুদিন আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জের রস দ্বীপের নাম রাখেন নেতাজির নামে। নেতাজি আন্দামান জয় করে তার নাম রেখেছিলেন শহিদ ও নিকোবরের নাম স্বরাজ। সেই নামকরণকে স্বীকৃতি দিয়ে হ্যাভলক দ্বীপের নাম রাখা হয়েছে স্বরাজ দ্বীপ ও নীলের নাম শহিদ দ্বীপ।