Friday, July 19, 2024
দেশ

পরিচয় গোপন করে হিন্দু তরুণীকে বিয়ে, রকিবুল হাসানকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিলো আদালত

কলকাতা ট্রিবিউন ডেস্ক: বৃহস্পতিবার সিবিআইয়ের বিশেষ আদালত তারা শাহদেও (Tara Shahdeo) ধর্মান্তর মামলায় তার প্রাক্তন স্বামীকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে।

আদালত শাহদেওর প্রাক্তন স্বামী রঞ্জিত কোহলি ওরফে রকিবুল হাসানকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড, তার শাশুড়িকে ১০ বছরের কারাদণ্ড এবং মুশতাক আহমেদকে ১৫ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে। পাশাপাশি,আদালত তিনজনের প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানাও করেছে।

৩০ সেপ্টেম্বর বিশেষ সিবিআই আদালত এই মামলায় তিনজনকে দোষী সাব্যস্ত করে। সাজা ঘোষণার জন্য ৫ অক্টোবর পরবর্তী তারিখ নির্ধারণ করেছিল।

রকিবুল হাসানের আইনজীবী মুখতার আহমেদ খান সাংবাদিকদের বলেছেন, “আমরা উচ্চ আদালতে যাবো। উচ্চ আদালতে ন্যায়বিচার পাওয়ার বিষয়ে আমরা আত্মবিশ্বাসী।”

শাহদেও তার অভিযোগে বলেছিলেন, ‘তিনি রঞ্জিত কোহলি ওরফে রকিবুল হাসানকে ৭ জুলাই, ২০১৪ সালে হিন্দু রীতি অনুসারে বিয়ে করেছিলেন। কিন্তু তার বিয়ের ঠিক দ্বিতীয় দিন পরে তার স্বামী এবং মুশতাক আহমেদ, যিনি সেই সময়ে ভিজিল্যান্সের রেজিস্ট্রার হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন, তাকে তার ধর্ম পরিবর্তন করতে এবং নিকাহ করতে বাধ্য করা শুরু করেছিল।’

সিবিআই ২০১৫ সালে এই মামলার তদন্তের দায়িত্ব নেয় এবং দিল্লিতে একটি মামলা নথিভুক্ত করে। নির্যাতনের কারণে ২০১৮ সালের জুন মাসে রাঁচির একটি পারিবারিক আদালত শাহদেওকে বিবাহবিচ্ছেদ মঞ্জুর করে।

তারা শাহদেও আদালতে আবেদন করেছিলেন, ‘রকিবুল হাসান তার ধর্ম সম্পর্কে মিথ্যা তথ্য দিয়েছেন। তাকে প্রতারণা করে বিয়ে করেছেন। ইসলাম ধর্ম গ্রহণে অস্বীকৃতি জানানোয় হাসান তাকে নির্যাতন করতো।’ ইন্ডিয়া টুডে