Tuesday, May 21, 2024
দেশ

শিবসেনা-হিন্দু পরিষদের সমাবেশকে ঘিরে আতংক, অযোধ্যায় আরেকটি ৯২ হবে নাতো?

অযোধ্যা: শিবসেনা আর বিশ্ব হিন্দু পরিষদের শনিবার ও রবিবার- পরপর দু’দিনের কর্মসূচি নিয়ে আতঙ্কে কাঁপছে গোটা অযোধ্যা। ইতিমধ্যেই গোটা এলাকা জুড়ে জারি হয়েছে ১৪৪ ধারা। মন্দির রাজনীতির অন্যতম পৃষ্ঠপোষক যোগী আদিত্যনাথও এ নিয়ে যথেষ্ট দুশ্চিন্তায়। অযোধ্যার মানুষ এই আশঙ্কাতেই ভুগছেন যে, ১৯৯২ সালের ৬ডিসেম্বর যা ঘটেছিল, তারই পুনরাবৃত্তি হবে না তো রবিবার?

রবিবার শিবসেনা ও বিশ্ব হিন্দু পরিষদের ডাকা পৃথক সমাবেশে কয়েক লাখ মানুষ সেখানে রাম মন্দির তৈরির দাবি নিয়ে হাজির হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ইতিমধ্যেই মহারাষ্ট্র থেকে বিশেষ ট্রেনে চেপে শিবসেনার কয়েক হাজার সমর্থক হাজির হয়েছেন। শনিবার বিকালে অযোধ্যায় পৌঁছিয়েছেন শিবসেনা প্রধান উদ্ধব ঠাকরেও।

এই পরিস্থিতিতেই অযোধ্যার মানুষের মনে নতুন করে আশঙ্কা তৈরি হয়েছে যে আবারও সেই ১৯৯২ সালের ৬ডিসেম্বরের মতো ঘটনা না ঘটে। তবে কোনও অপ্রীতিকর পরিস্থিতি যাতে তৈরি না হয়, তার জন্য লাখ খানেক নিরাপত্তা কর্মী অযোধ্যায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এর মধ্যে রাজ্য সশস্ত্র পুলিশ যেমন আছে, তেমনই রয়েছে কেন্দ্রীয় রিজার্ভ পুলিশও।

আরএসএসের সহযোগী সংগঠন বিশ্ব হিন্দু পরিষদ রবিবার ‘ধর্মসভা’ ডেকেছে অযোধ্যায়। সেখানে তারা ধর্মগুরু আর সাধারণ মানুষের মতামত জানতে চাইবে প্রকাশ্যে যে কিভাবে রামমন্দির তৈরির দিকে এগোনো যায়। তারা ঘোষণা করেছে, এটাই হবে মন্দির তৈরির আগে ‘শেষ সমাবেশ’। এরপরে আর কোনও ধর্না, সভা, সমাবেশ নয় – শুধুই মন্দির নির্মাণের কাজে এগোনো হবে।