Saturday, June 15, 2024
বিনোদন

ঝড়ের মধ্যে কুকুর-বিড়াল বাড়িতে আশ্রয় নিলে তাড়িয়ে দেবেন না: ঋতাভরী

কলকাতা: কখনও এলাকার প্রবীণ নাগরিকদের সঙ্গী আবার কখনও বিশেষভাবে অক্ষম শিশুদের পাশে দাঁড়িয়েছেন তিনি। কখনও পথশিশু কখনও আবার অনাথ বাচ্চাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন অভিনেত্রী। আবার কখনও নারী সচেতনতায় কাজ করেছেন তিনি। বলছি টলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী ঋতাভরী চক্রবর্তীর কথা। কলকাতার বিভিন্ন পাবলিক লেডিজ টয়লেটে স্যানিটারি ন্যাপকিন রাখার ব্যবস্থাও করেছেন তিনি।

এবার ঘূর্ণিঝড় ইয়াস আঘাত হানার আগে বিশেষ আর্জি জানালেন ঋতাভরী চক্রবর্তী। তাঁর আর্জি, অতি প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে বাড়িতে কুকুর, বিড়াল আশ্রয় নিতে এলে অমানবিকদের মতো তাড়িয়ে দেবেন না প্লিজ। আপনার বাড়িতে একটু আশ্রয় দিন। ওদেরকে আশ্রয় দিন। ওদেরও প্রাণ আছে, দয়া করে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেবেন না।

এবার মা দিবসে দিনটিকে সম্পূর্ন অন্যভাবে উদযাপন করেছেন অভিনেত্রী। শুধুমাত্র জন্ম দিলেই যে মা হওয়া যায় এমন কিন্তু না। এই দিন ৭৪ জন শিশুর মা হয়ে উঠেছেন অভিনেত্রী‌। সল্টলেকের একটি স্কুলের হাত ধরে মা হয়ে ওঠেন তিনি। মাত্র ১৬ বছর বয়সে তিনি এই স্কুলের সাথে যুক্ত হন। তারপর সময় যত এগোতে থাকে অভিনেত্রীর সঙ্গে বাচ্চাদের সম্পর্ক তত গভীর হতে থাকে। এই স্কুলের ৭৪ জন পড়ুয়ার পড়াশোনার দায়িত্ব কাঁধে তুলে নিয়েছেন অভিনেত্রী।

পাশাপাশি, করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও ৮০টির‌ও বেশি পাবলিক লেডিজ টয়লেটে ভেন্ডিং মেশিন বসানোর কাজ সম্পূর্ণ করেছেন তিনি। সবমিলিয়ে সহৃদয়তা এবং মানবিকতায় ভক্তকুলের মন জয় করে নিয়েছেন তিনি।