Sunday, June 23, 2024
দেশ

বিশদে তদন্ত না করেই পাকিস্তানকে দোষারোপ ঠিক না, পুলওয়ামা নিয়ে মন্তব্য মমতার

কলকাতা: পুলওয়ামায় আত্মঘাতী জঙ্গি হামলার ঘটনায় মোদী সরকারকে কাঠগড়ায় তুললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুক্রবার সন্ধ্যায় নবান্ন থেকে বেরনোর সময়ে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হন মুখ্যমন্ত্রী। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, পররাষ্ট্র বিষয়ে আমি সচরাচর মন্তব্য করি না। এই সব ক্ষেত্রে দেশের অবস্থানই আমার অবস্থান। তবে বৃহস্পতিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুরের হামলার পরপরই জানিয়ে দেওয়া হয়, এ ঘটনার নেপথ্যে পাকিস্তানের হাত রয়েছে।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, বিশদে না গিয়ে কোনও সিদ্ধান্ত নিয়ে নেওয়া ঠিক নয়। বিষয়টা খুবই স্পর্শকাতর। সেটা মাথায় রেখে আগে তদন্ত করা হোক। তার পর দোষীদের বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া যাবে। পাশাপাশি, পুলওয়ামা হামলা কেন্দ্রের গোয়েন্দা ব্যর্থতা বলে অভিযোগ করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রীর প্রশ্ন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক ও জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা কী করছিলেন?

মুখ্যমন্ত্রীর এই বিস্ফোরক মন্তব্যে তীব্র বিতর্ক তৈরি হয়েছে। কারণ, কাশ্মীরে ভয়াবহ এই জঙ্গি হামলার পরেই ঘটনার দায় স্বীকার করেছে পাকিস্তানের জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মহম্মদ। এছাড়া, কেন্দ্রের তরফে ঘোষণা করা হয়েছে, এই ঘটনার পিছনে হাত রয়েছে পাকিস্তানের। এমনকি পাকিস্তানের মাটিতে বসেই পুরো হামলার ছক সাজানো হয়েছে বলেও জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং। গোটা দেশ পাকিস্তানে হামলা করার পক্ষে। সেখানে মুখ্যমন্ত্রী এমন মন্তব্য কীভাবে করলেন তা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন।

মমতার এই প্রতিক্রিয়ার পর অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি বলেছেন, পুলওয়ামার ঘটনার নেপথ্যে যে পাকিস্তানের সরাসরি হাত রয়েছে, সে ব্যাপারে অকাট্য প্রমাণ রয়েছে নয়াদিল্লির কাছে। বিজেপি সংশ্লিষ্ট নেতাদের অভিযোগ, পুলওয়ামার ঘটনা নিয়েও রাজনীতি করছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি সংখ্যালঘুদের তুষ্ট করার জন্য এতটাই মরিয়া যে পুলওয়ামায় ভয়াবহ জঙ্গি হামলায় ৪৪ জন সেনা জওয়ানের মৃত্যুর পরেও পাকিস্তানের উপর দোষারোপেও তিনি আপত্তি জানাচ্ছেন।