Tuesday, May 21, 2024
দেশ

পিরিয়ড তাই স্থান গোয়ালঘরে, কুসংস্কার মানতে গিয়ে ঘূর্ণিঝড়ের বলি কিশোরী

চেন্নাই: পিরিয়ড হওয়ার কারণে ১৪ বছরের কিশোরী বিজয়লক্ষ্মীকে একটি গোয়ালঘরে আলাদা থাকতে বাধ্য করে পরিবারের লোকজন। ওই সময় রাতে ঘূর্ণিঝড় ‘গাজা’ আঘাত হানে। ঝড়ের দাপটে একটি নারকেল গাছ ভেঙে পড়ে গোয়ালঘরের ওপর। তবে তার নীচ থেকে বের হতে পারেনি বিজয়লক্ষ্মী। ঘরের ভেতরই চাপা পড়ে মৃত্যু হয় তার। মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটে তামিলনাড়ুর থাঞ্জাভুর জেলায়।

পুলিশ জানিয়েছে, সপ্তম শ্রেণিতে পড়ত বিজয়লক্ষ্মী। তার বাবা সেলভারাজ একটি নারকেল বাগানে কাজ করতেন। ঘূর্ণিঝড় ‘গাজা’ আছড়ে পড়ার তিনদিন আগে মেয়েটি প্রথম ঋতুমতী হয়। এক পুলিশকর্মীর কথায়, প্রথমবার পিরিয়ডের সময় তাকে বাড়িতে ঢুকতে নিষেধ করেছিল তার পরিবার। বাড়ির বাইরে একটি কুঁড়েঘরে কয়েকদিনের জন্য তাকে থাকতে দেওয়া হয়েছিল।

প্রচণ্ড গতিবেগের ঘূর্ণিঝড় ‘গাজা’ ওই এলাকার উপর দিয়ে বয়ে যায়, তখন একটি নারকেল গাছ ভেঙে পড়ে গোয়ালঘরের ওপর। গুরুতরভাবে জখম হয় বিজয়া। সাহায্য চেয়ে চিত্‍‌কার করে ওঠেন। তবে হাওয়ার শনশন আওয়াজে সেই ডাক পৌঁছয়নি বাড়ির লোকেদের কানে। রাতেই মৃত্যু হয় বিজয়ার।

প্রসঙ্গত, দেশের অনেক গ্রামীণ এলাকায় পিরিয়ড সম্পর্কে কুসংস্কার প্রচলিত আছে। অনেকে মনে করে মেয়েরা এ সময় অপরিচ্ছন্ন থাকে। তাই তাদেরকে গোয়ালঘর অথবা রান্না ঘরে থাকতে বাধ্য করা হয়। বিজয়লক্ষ্মীর এই নির্মম পরিণতি পিরিয়ড সম্পর্কে প্রচলিত কুসংস্কারের বিরুদ্ধে জেগে উঠতে সবার চোখ খুলে দেয়ার মতো ঘটনা।