Thursday, May 30, 2024
আন্তর্জাতিক

পাকিস্তানের স্কুলে বলিউডি গানের সঙ্গে নাচ, বাতিল স্কুলের অনুমোদন 

করাচি: ‘ফির ভি দিল হ্যায় হিন্দুস্তানি’ গানের সঙ্গে ভারতীয় তেরঙ্গা নিয়ে একটি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করায় করাচির একটি স্কুলের রেজিস্ট্রেশন বাতিল করল পাক প্রশাসন। স্কুল পর্যবেক্ষকদের দাবি, এর জেরে দেশের ‘জাতীয় মর্যাদা’ ক্ষুণ্ণ হয়েছে। তাই অনুমোদন বাতিল করা হয়েছে ওই স্কুলের।

ঘটনাটি করাচির মামা বেবি কেয়ার স্কুলের। স্কুলের অনুষ্ঠানে চলছে তখন ভারতীয় সঙ্গীত। শাহরুখ খানের ছবির গান বাজছে ডিসপ্লে স্ক্রিনে। বাজছে ‘ফির ভি দিল হ্য়ায় হিন্দুস্তানি’। আর সেই গানের তালে নেচে চলেছে স্কুলের পড়ুয়ারা। শত্রু রাষ্ট্রের গানের সঙ্গে নাচ নজর এড়ায়নি করাচির স্কুল পর্যবেক্ষকদের। তাই অনুমোদন বাতিল করা হয়েছে ওই স্কুলের।

ডিরেক্টোরেট অফ ইনস্পেকশন অ্যান্ড রেজিস্ট্রেশন অফ প্রাইভেট ইনস্টিটউশনস সিনধ (ডিআইআরপিআইএস) স্কুলটিকে  তিন দিনের শত্রু দেশের গান বাজানোর কারণ দর্শানোর নোটিস জারি করে। কিন্তু স্কুলের মালিকের তরফ থেকে কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি। ফলে স্কুলটির রেজিস্ট্রেশন সাসপেন্ড করা হয়। এ বিষয়ে এডিআইআরপিআইএস-এর রেজিস্ট্রার রাফিয়া জাভেদ বলেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ভারতীয় সংস্কৃতির প্রচার করা পাকিস্তানের জাতীয় সম্মানের পক্ষে অবমাননাকর। কোনও অবস্থাতেই তা মেনে নেওয়া হবে না।

এদিকে, ওই স্কুলের ভাইস-প্রিন্সিপাল ফাতিমা বলেন, পড়ুয়াদের বিভিন্ন দেশের সংস্কৃতি সম্পর্কে ওয়াকিবহাল করতেই ওই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। সংবাদমাধ্যম শুধু ভারতের অংশটুকু সম্প্রচার করেছে। অবশ্য পড়শি বলতে একমাত্র ভারতের সঙ্গে নয়, ইরানের সঙ্গেও সম্পর্ক খারাপ হচ্ছে পাকিস্তানের। পুলওয়ামা হামলার কয়েকঘন্টা আগেই নিরাপত্তা কনভয়ে আত্মঘাতী হামলা করা হয় ইরানের সিস্তানে। ভয়াবহ ওই হামলায় ২৭ জন ইরাকি সেনা নিহত হয়। যার ফলে সন্ত্রাসবাদে পত্যক্ষ মদদ দেওয়া প্রসঙ্গে এবার পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সরব হল প্রতিবেশী ইরান।