Thursday, June 13, 2024
টালিউড

হলফনামায় উচ্চমাধ্যমিক, লোকসভার ওয়েবসাইটে অনার্স পাশ, নুসরতের শিক্ষাগত যোগ‍্যতা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন

কলকাতা: প্রথমে মা হওয়ার জল্পনা, তারপরে নিখিল জৈনের সাথে বৈবাহিক সম্পর্ক নিয়ে বিতর্কে চলে আসার পর এবার শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়ে বিতর্কে জড়ালেন তৃণমূল সাংসদ তথা অভিনেত্রী নুসরত জাহান (Nusrat Jahan)। নুসরতের শিক্ষাগত যোগ‍্যতা হলফনামায় একরকম আর লোকসভার ওয়েবসাইটে আরেকরকম।

২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে লড়াইয়ের আগে নিয়ম মেনে নির্বাচন কমিশনের কাছে হলফনামা জমা দিয়েছিলেন নুসরত। সেই হলফনামায় নুসরতের শিক্ষাগত যোগ্যতা লেখা উচ্চ মাধ্যমিক পাশ। ২০০৮ সালে ভবানীপুর গুজরাটি এডুকেশনাল সোসাইটি থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করেন তিনি। এদিকে, লোকসভার ওয়েবসাইট বলছে, নুসরত বি.কম অনার্স। দুই জায়গায় দেওয়া সাংসদ অভিনেত্রীর দুরকম তথ্য ঘিরে প্রশ্ন উঠছে।

বৈবাহিক সম্পর্ক নিয়ে নুসরত জানিয়েছেন,  নিখিলের সঙ্গে সহবাস করেছি, বিয়ে হয়নি। তুরস্কের বিয়ে বৈধ নয়। তাই বিচ্ছেদের কোনও প্রশ্নই ওঠে না। অথচ লোকসভার ওয়েবসাইটে দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, নুসরত বিবাহিত। তাঁর স্বামী নিখিল জৈন। ২০১৯ সালের ১৯ জুন বিয়ে করেন তারা।

এমনকি, লোকসভায় শপথ নেওয়ার সময়ও নুসরত নিজের নাম বলেছিলেন, ‘আমি নুসরত জাহান রুহি জৈন’। তবে কি নুসরত সংসদে দাঁড়িয়ে মিথ্যা বলেছিলেন? সেই বিতর্কের মধ্যেই এবার সামনে এল নুসরতের শিক্ষাগত যোগ‍্যতা নিয়ে গড়মিল।