Tuesday, June 18, 2024
আন্তর্জাতিক

প্রকাশ্য দিবালোকে পাকিস্তানের মন্দিরে হামলা, মূর্তি ভাঙচুর, হিন্দু বাড়িতে হামলা

ইসলামাবাদ: পাকিস্তানে ফের হিন্দু মন্দিরে হামলার ঘটনা ঘটল। এবার পাঞ্জাব প্রদেশের রহিম ইয়ার খান জেলার ভোঙ্গ শহরে সিদ্ধি বিনায়ক মন্দিরে হামলা চালাল একদল উত্তেজিত জনতা। মন্দিরে ভাঙচুর চালায় তারা। ভেঙে ফেলে হয় মূর্তি। ইতিমধ্যেই ঘটনার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন নেটিজেনরা। ঘটনার নিন্দায় সরব হয়েছে ভারত। নয়াদিল্লির অভিযোগ, পাকিস্তানের ইমরান খান সরকার সংখ্যালঘুদের অধিকার রক্ষা করতে ব্যর্থ।

পুলিশ জানিয়েছে, বুধবার একদল উত্তেজিত জনতা মন্দিরের ঢুকে হামলা চালায়। লাহোর থেকে ৫৯০ কিলোমিটার দূরে রহিম ইয়ার খান জেলার ভোঙ্গ শহরে অবস্থিত এই মন্দিরটি। উত্তেজিত জনতাকে নিয়ন্ত্রণে আনতে ব্যর্থ হয় পুলিশ। তাই বাধ্য হয়ে তারা পাকিস্তান রেঞ্জারসকে খবর দেন।

এদিকে এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। ওই এলাকায় নিরাপত্তায় প্রচুর পরিমাণে সেনা মোতায়েন করা হয়েছে।

জানা যায়, বহু দশক ধরে ভোঙ্গে শহরে শান্তিতে বসবাস করে আসছে হিন্দু-মুসলিমরা। গত সপ্তাহের একটি ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। অভিযোগ, ৮ বছরের এক শিশু মাদ্রাসার লাইব্রেরিতে প্রস্রাব করলে অশান্তির সূত্রপাত ঘটে। পরবর্তীতে শহরজুড়ে হিংসা ছড়িয়ে পড়ে।

তেহরিক-ই-ইনসাফ পার্টির সাংসদ রমেশ কুমার ভঙ্কওয়ানি ঘটনার ভিডিও টুইটারে শেয়ার করেছেন। তিনি প্রশাসনকে এই হামলা বন্ধ করার আবেদন করেন। তার শেয়ার করা ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, ইট, পাথর , লাঠি হাতে নিয়ে উত্তেজিত জনতা মন্দিরে হামলা চালাচ্ছে। মূর্তি ভেঙে ফেলছে।