Sunday, April 21, 2024
রাজ্য​

‘আপনারা ভিন রাজ্যে কেন? বাংলায় ফিরে চপ, ঘুগনি, চা বিক্রি করুন’, মিজোরামে ব্রিজ দুর্ঘটনার পর পরিযায়ী শ্রমিকদের বার্তা মমতার

কলকাতা ট্রিবিউন ডেস্ক: মিজোরামে ব্রিজ দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের ২৩ জন পরিযায়ী শ্রমিক। বিরোধীদের অভিযোগ, পশ্চিমবঙ্গে কর্মসংস্থান না থাকায় ভিন রাজ্যে পাড়ি দিচ্ছে শ্রমিকরা। এবার এ প্রসঙ্গে মুখ খুললেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

মিলন মেলা প্রাঙ্গনে পরিযায়ী শ্রমিকদের উদ্দেশ্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “আপনারা ভিন রাজ্যে কাজ করতে যাচ্ছেন কেন? বাংলায় ফিরে আসুন। আপনার ঘরের সামনেই কাজ। রাজ্যে ফিরে চায়ের দোকান করুন। দোকানে চা, ঘুগনি, বিস্কুট, পাঁউরুটি রাখুন। সাথে চপও ভাজুন। ৩ থেকে ৪ জন কর্মচারী রেখে দিন। দেখবেন ভালো বেচাকেনা হবে। এর ফলে আপনাকে বাইরেও যেতে হবে না। পরিবারের থেকে দূরেও থাকতে হবে না।”

মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, “পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য রাজ্যে অনেক কাজের ব্যবস্থা করা হয়েছে। সরকারের তরফে ৫ লাখ টাকা লোন দেওয়া হচ্ছে। এই লোন নিয়ে ব্যবসা শুরু করুন। বাংলার বাইরে আপনাদের জীবনের কোনও নিরাপত্তা নেই। ল্যাংচা হাব, তাঁতশিল্প এবং চর্মশিল্পেও আপনারা যোগদান করতে পারেন।”

মমতার মন্তব্যের তীব্র বিরোধিতা করেছেন বিরোধীরা। বিজেপির দাবি, ‘বাংলায় কাজ নেই। ১০০ দিনের কাজে দুর্নীতি হচ্ছে। মানুষ স্ত্রী-সন্তানদের ছেড়ে ভিন রাজ্যে কাজের জন্য পাড়ি দিচ্ছেন। পশ্চিমবঙ্গের ৪০ লাখ ভিন রাজ্যে কাজের জন্য থাকেন। ভিন রাজ্যে তারা কষ্টের মধ্যে থাকেন। বাংলায় কাজ নেই। তাই বাংলার মানুষ বাধ্য হয়ে ভিন রাজ্যে যাচ্ছেন।’’ 

বিজেপি নেতা অম্লান ভাদুড়ি বলেন, “রাজ্যের মমতা সরকার কাজের ব্যবস্থা করতে পারছে না। অথচ রাজনীতি করছে। এটা অত্যন্ত দুঃখজনক।’’

উল্লেখ্য, মিজোরামের সাইরাং এলাকায় ব্রিজ দুর্ঘটনায় ২৬ জন শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। যার মধ্যে ২৩ জনই পশ্চিমবঙ্গের।