Thursday, April 25, 2024
দেশ

বিশ্ব সুন্দরীর সম্মান অর্জন করে দেশে ফিরলেন মানুষী

মুম্বাই: বিশ্ব সুন্দরীর সম্মান অর্জন করে রবিবার সকালে দেশে ফিরলেন মানুষী চিল্লার। মুম্বাই বিমানবন্দরে পা রাখতেই তাঁকে ঘিরে উপচে পড়ল মানুষের ভিড়। সেখানে তাকে রাজকীয় সংবর্ধনা দেওয়া হয়। টুইট করে সকলকে ধন্যবাদ জানাতেও ভোলেননি মানুষী।

মানুষীর সাফল্যে উচ্ছ্বসিত তাঁর রাজ্যবাসীও। হরিয়ানার মহিলা ও শিশু কল্যাণ মন্ত্রী কবিতা জৈন বলছেন, মানুষী চিল্লারই প্রমাণ করে দিলেন সরকারের ‘বেটি বাঁচাও বেটি পড়াও’ অভিযান কীভাবে সাফল্যের পথেই হাঁটছে।

১৯৯৪ সালে ঐশ্বর্য রাই ও শেষবার ২০০০ সালে ভারত থেকে মিস ওয়ার্ল্ডের শিরোপা পেয়েছিলেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। তারপর দীর্ঘ ১৭ বছর পর হরিয়ানার ২১ বছরের তরুণী মানুষী চিল্লারের হাত ধরে ফের একবার মিস ওয়ার্ল্ডের মুকুট এল ভারতে। ২১ বছর বয়সী মনুষী হরিয়ানার সোনিপথের বিপিএস মেডিক্যাল কলেজের তৃতীয় বর্ষের ডাক্তারি ছাত্রী। ১০৮জন প্রতিযোগীকে হারিয়ে চিনের সানিয়া সিটিতে অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতায় মিস ওয়ার্ল্ডের খেতাব জিতে নেন মনুষী। তাঁকে মুকুট পরিয়ে দেন ২০১৬র মিস ওয়ার্ল্ড রিকো স্টিফালি ডেল ভ্যালি।

বিশ্বসুন্দরী প্রতিযোগিতার ফাইনালের মঞ্চে মানুষীকে প্রশ্ন করা হয়েছিল ‘কোন পেশায় বেতন সবথেকে বেশি হওয়া উচিত?’ এ ক্ষেত্রে মানুষীর উত্তর ছিল, ‘একজন ‘মা’ সর্বোচ্চ প্রাপ্যের দাবিদার।’ মানুষী বলেন, “আমার সবচেয়ে কাছের মানুষটি আমার মা। তাই আমার মনে হয় একজন মা-ই সবচেয়ে বেশি ভালবাসা আর মর্যাদা পাওয়ার যোগ্য। আর শুধু অর্থটাই বড় কথা নয়, কারও থেকে ভালবাসা ও সম্মান পাওয়াটাও সমান জরুরি। মায়েরা সন্তানের জন্য নিজের জীবন পর্যন্ত উৎসর্গ করে দেন। তাই সম্মান ও বেতনের যদি কেউ সবচেয়ে বেশি যোগ্য হন, তবে তিনি অবশ্যই একজন মা।” আর এই প্রশ্নের উত্তরই সেরার সম্মান এনে দিয়েছে তাঁর জন্য।