Friday, April 12, 2024
দেশ

বাড়িতে ঢুকে ২ শিশুকে খুন, উত্তরপ্রদেশে পুলিশি এনকাউন্টারে খতম দুষ্কৃতী সাজিদ

কলকাতা ট্রিবিউন ডেস্ক: উত্তরপ্রদেশের বুদাউনে এক যুবক দুই নাবালককে কুপিয়ে হত্যা করে। ঘটনাটি মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বাবা কলোনিতে ঘটে। অভিযুক্ত ২২ বছর বয়সী সাজিদ। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বিনোধ কুমার সিংয়ের বাড়িতে যায় সাজিদ। সেখানে ১২, ৮ এবং ১০ বছর বয়সী তিন ভাইকে আক্রমণ করে। হামলায় ১২ এবং ৮ বছর বয়সী দুই ভাই মারা গেলেও তৃতীয় শিশুটিকে গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

জানা গেছে, ঘটনার সময় ওই বাড়ির মালিক বিনোধ বাড়িতে ছিলেন না। ঘরে ছিলেন বিনোধের স্ত্রী ও তিন সন্তান। সাজিদ পূর্ব পরিচিত হওয়ায় অবাধ যাতায়াত ছিল বিনোধের বাড়িতে। ঘরে ঢুকে সাজিদ বিনোধের স্ত্রীকে চা খাওয়ানোর অনুরোধ করেন। সেইমতো তিনি চা বানাতে গেলে ঘর থেকে বেরিয়ে ছাদে চলে যান সাজিদ। সেখানে তখন খেলছিল বিনোধের ৩ ছেলে আয়ুষ, আহান ও পীযূষ। হঠাৎ কুড়ুল নিয়ে তাদের উপর চড়াও হন সাজিদ। ঘটনার পরে পালিয়ে যায় সাজিদ।


ঘটনার কয়েক ঘণ্টা পর এনকাউন্টারে সাজিদকে গুলি করে হত্যা করা হয়। বুধবার ময়নাতদন্ত শেষে শিশুদের লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। ঘটনার পর কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে এলাকায় নিরাপত্তা কর্মী মোতায়েন করা হয়েছে।

অভিযুক্ত সাজিদ সম্প্রতি ওই এলাকায় একটি নাপিতের দোকান খুলেছিল। ঘটনাটি ঘটেছে সিভিল লাইন থানার মান্ডি পুলিশ পোস্ট থেকে কয়েক ধাপ দূরে। ঘটনার বিষয়ে মন্তব্য করে জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মনোজ কুমার বলেন, সাজিদ বাড়িতে ঢুকে শিশুদের ওপর হামলা চালায়।

আইপিএস ডক্টর রাকেশ সিং বলেন, হামলার পেছনের কারণ খুঁজে বের করার জন্য তদন্ত চলছে। সাজিদকে রক্তে ভেজা পোশাক পরে দেখা গিয়েছিল যখন সে বাড়ি থেকে বের হয়েছিল।

এসএসপি বুদাউন অলোক প্রিয়দর্শী বলেন, “অভিযুক্ত সাজিদ মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে বাড়িতে প্রবেশ করে এবং শিশুরা যেখানে খেলছিল সেখানে বারান্দায় যায়। শিশুদের উপর আক্রমণ করে হত্যা করে। তারপর নিচে নেমে আসে যেখানে জনতা তাকে আটকানোর চেষ্টা করে, কিন্তু সে পালিয়ে যায়।”