Tuesday, May 21, 2024
কলকাতা

বিজেপিবিরোধী দলগুলো একজোট হলে মোদীকে পরাজিত করা সম্ভব: মমতা

কলকাতা: স্বাধীনতার পর ৭১ বছরের ইতিহাসে কোনও বাঙালি প্রধানমন্ত্রী হননি। এবার দাবি উঠেছে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে। তৃণমুল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দেশের প্রধানমন্ত্রী করার জন্য দাবি তুলেছেন তৃণমূল কংগ্রেসের নেতারা। তৃণমূল চাইছে, মমতাই হবেন দেশের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী।

তৃণমূলের যুক্তি, বর্তমান শাসক দলের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর জনপ্রিয়তা দিনে দিনে কমে যাচ্ছে। বিভিন্ন জনমত সমীক্ষায় সেই চিত্র ফুটে উঠেছে। তাই মমতা এবার বিজেপিবিরোধী দলকে নিয়ে মমতা ফেডারেল ফ্রন্ট গড়ার প্রস্তাব দিয়ে মাঠে নেমে পড়েছেন।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মনে করছেন, বিজেপিবিরোধী বিভিন্ন রাজনৈতিক দল একজোট হলে মোদীকে পরাজিত করা কঠিন হবে না। ইতিমধ্যে ২১ জুলাই কলকাতার ধর্মতলায় শহীদ দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক বিশাল সমাবেশে তিনি বলেন, মোদী আর ক্ষমতায় ফিরছেন না। ৫৪৩ আসনের লোকসভায় ১৫০-এর বেশি আসন পাবেন না। ফলে, বিরোধী শক্তির জোট ২০১৯ সালে সরকার গড়বে। গড়বে মানুষের সরকার। যদিও সর্বশেষ ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি একাই ২৮২টি আসন পেয়েছিল।

আগামী ১৯ জানুয়ারি কলকাতার ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ডে গোটা দেশ জুড়ে বিজেপিবিরোধী বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের মহাসমাবেশের ঘোষণা দিয়েছেন তৃণমুল সুপ্রিমো মমতা। এখন থেকেই আন্দোলন শুরু হবে ‘মোদী ঠেকাও, দেশ বাঁচাও’ আন্দোলন। মমতার কথায়, ‘২০১৯ বিজেপি ফিনিস’।

প্রসঙ্গত, বিজেপির সাম্প্রদায়িক নীতির বিরুদ্ধে এখন সোচ্চার হয়েছে বহু রাজনৈতিক দল। এমনকী বিজেপির নেতৃত্বাধীন এনডিএ থেকে সমর্থন তুলেও নিয়েছে বেশ কটি শরিক দল। এর মধ্যে রয়েছে শিবসেনা, তেলেগু দেশম। এসব দলের নেতারা এসে দাঁড়িয়েছেন মমতার প্রস্তাবিত ফেডারেল ফ্রন্টে যোগ দেওয়ার জন্য। পাশে দাঁড়িয়েছে জম্মু ও কাশ্মীরের সাবেক মুখমন্ত্রী ওমর আবদুল্লাহর ন্যাশনাল কনফারেন্সও।

দেশের অন্যতম প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীও সম্প্রতি বলেছেন, মোদীকে হঠাতে যদি অন্য কাউকে প্রধানমন্ত্রী করতে হয়, তবে সেই দাবি থেকে সরে আসবে কংগ্রেস। প্রয়োজনে মমতা বা মায়াবতীকে প্রধানমন্ত্রী করা হলে আপত্তি থাকবে না কংগ্রেসের।

গত শনিবার মেদিনীপুরের এক জনসভায় রাজ্যের পরিবহনমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী বলেন, মমতার বিকল্প নেই। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আজ আর কেবলমাত্র বাংলার নেত্রী নন। তিনি বিশ্ববন্দিত নেত্রী। আমরা বাঙালি প্রধানমন্ত্রী হিসেবে তাঁকে দেখতে চাই। তাঁকে প্রধানমন্ত্রী চাই। এদিনের সভায় তৃণমূলের রাজ্য সভাপতি সুব্রত বক্সীও শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে সুর মিলিয়ে বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সামনে রেখেই দেশে মোদিবিরোধী জোট হচ্ছে। মমতাই হবেন দেশের পরবর্তী নেত্রী-প্রধানমন্ত্রী।