Monday, May 27, 2024
বিনোদন

‘ভবিষ্যতের ভূত’-এর প্রদর্শন বন্ধ কেন? মুখ্যমন্ত্রী বললেন, ‘উত্তর দেব না’

কলকাতা: পরিচালক অনীক দত্তের ছবি ‘ভবিষ্যতের ভূত’ ছবিটি ১৫ ফেব্রুয়ারি মুক্তি পাওয়ার পর উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে বিভিন্ন প্রেক্ষাগৃহে বন্ধ করে দেওয়া হয় ছবিটির প্রদর্শন। তবে কে এই উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ? তার উত্তর অবশ্য মেলেনি।মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে ‘ভবিষ্যতের ভূত’-এর প্রদর্শন বন্ধ হওয়ার ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি স্পষ্ট বলে দেন, এটা নিয়ে আমি উত্তর দেব না। আমায় প্রশ্ন করবেন না।

তবে সিনেমাটির প্রদর্শন বন্ধ হওয়ার প্রতিবাদে সরব হয়েছেন টালিগঞ্জের অনেক শিল্পীরাই। ঘটনার প্রতিবাদে মুখ খুলেছেন অভিনেত্রী মাধবী মুখোপাধ্যায়, খরাজ মুখোপাধ্যায়, অভিনেতা আবির চট্টোপাধ্যায়, পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায়, অনিকেত চট্টোপাধ্যায়, অতনু ঘোষের মতো ব্যক্তিত্বরা। মুখ খুললেন কিংবদন্তি অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ও।

লিখিত বিবৃতিতে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের দাবি, যেভাবে মুক্তির একদিন পরেই কলকাতার হলগুলিতে ছবির প্রদর্শন বন্ধ হয়েছে, তা জেনে তিনি স্তম্ভিত। ‘প্রতিশোধমুলক আচরণ’ থেকেই এমনটা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি। সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় লিখেছেন, নির্মাতা অনীক দত্তর গত কলকাতা ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের এক সভায় কিছু মন্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় প্রশাসন এমন ব্যবস্থা নিল এ কথা ভাবার যথেষ্ট কারণ রয়েছে।

উল্লেখ্য, গত বছর কলকাতা ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের সময়ে নন্দন চত্বরে মুখ্যমন্ত্রীর বড় বড় ছবি লাগানো নিয়ে সমালোচনায় সরব হয়েছিলেন ‘ভবিষ্যতের ভূত’ ছবির নির্মাতা অনীক দত্ত। ছবির প্রদর্শন বন্ধ হওয়ার ঘটনার নিন্দা করার মতো ভাষাও তাঁর কাছে নেই বলে জানিয়েছেন ক্ষুব্ধ অভিনেতা। তাঁর প্রশ্ন, ছবি করার মধ্যে কি এমন কিছুই রাখা চলবে না যা শাসন কর্তাদের পছন্দ নয়?