Thursday, June 13, 2024
কলকাতা

মমতার খেলা হবে দিবসে মুসলিম লিগ ‘গ্রেট ক্যালকাটা কিলিং’ শুরু করে: স্বপন দাশগুপ্ত

কলকাতা: ২১ জুলাই শহিদ দিবসের মঞ্চ থেকে ‘খেলা হবে’ দিবসের তারিখ ঘোষণা করলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। ১৬ আগস্ট রাজ্যজুড়ে পালিত হবে খেলা হবে দিবস (Khela Hobe Diwas)। এই ঘোষণার পর তৈরি হলো বিতর্ক। তৃণমূল সুপ্রিমোকে নিশানা করল বিজেপি। মুসলিম লিগের ‘গ্রেট ক্যালকাটা কিলিং’-এর কালো অধ্যায় মনে করিয়ে দিলেন বিজেপি সাংসদ স্বপন দাশগুপ্ত।

স্বপন দাশগুপ্ত টুইটে লিখেছেন, ১৬ আগস্টকে ‘খেলা হবে দিবস’ হিসেবে ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ১৯৪৬ সালের এই দিনেই মুসলিম লিগ তাদের ‘ডাইরেক্ট অ্যাকশন ডে’ এবং ‘গ্রেট ক্যালকাটা কিলিং’ শুরু করেছিল। বর্তমানে পশ্চিমবঙ্গে ‘খেলা হবে’ স্লোগান বিরোধীদের উপর হিংসার প্রতীক হয়ে উঠেছে।


উল্লেখ্য, ১৯৪৬ সালের ১৬ আগস্ট কলকাতায় সাম্প্রদায়িক হিংসার সূচনা হয়েছিল। যা ইতিহাসে ‘দ্য গ্রেট ক্যালকাটা কিলিংস’ নামে পরিচিত। ওইদিন পৃথক পাকিস্তান রাষ্ট্রের দাবিতে মুসলিম লিগ ‘প্রত্যক্ষ সংগ্রাম দিবস’ (ডাইরেক্ট অ্যাকশন ডে) পালনের ডাক দিয়েছিল। যাকে কেন্দ্র করে হিংসার সূচনা হয়েছিল। যাতে নিহত হয়েছিল বহু মানুষ।

মাত্র ৭২ ঘন্টার মধ্যে কলকাতা শহরে ৪ হাজারেরও বেশি সাধারণ মানুষ প্রাণ হারান এবং ১ লাখ বাসিন্দা গৃহহারা হন। কলকাতার এই হত্যাকাণ্ড পরবর্তীতে বাংলাদেশের নোয়াখালী, বিহার, উত্তরপ্রদেশ, পাঞ্জাব এবং উত্তর-পশ্চিম সীমান্ত প্রদেশে আরও সাম্প্রদায়িক হিংসার সূচনা করেছিল, যার ফলস্বরূপ ভারত বিভাজনের গতি ত্বরান্বিত হয়।

তবে তৃণমূল নেতৃত্বের একাংশের দাবি, ১৬ আগস্টকে খেলা হবে দিবস ঘোষণা করার পিছনে বিশেষ তাৎপর্য রয়েছে। ১৯৮০ সালের এই দিনে মোহনবাগান-ইস্টবেঙ্গল ডার্বিতে সংঘর্ষে ১৬ জন ফুটবলপ্রেমীর মৃত্যু হয়েছিল। এরপর থেকে এই দিনটিকে ফুটবল প্রেমী দিবস হিসাবে পালন করা হয়।