Saturday, June 15, 2024
দেশ

বিপাকে সিধু, ‌ইস্তফা দাবি করলেন কংগ্রেসের একাধিক নেতা সহ রাজ্যের ৪ মন্ত্রী‌

নয়াদিল্লি: করতারপুর-‌বিতর্কে নিজের রাজ্যেই কোণঠাসা পাঞ্জাব সরকারের পর্যটন, কারেন্ট অ্যাফায়ার্স, মিউজিয়ামের মতো গুরুত্বপূর্ণ দপ্তরের মন্ত্রী নভজ্যোত্‍ সিং সিধু। এবার কংগ্রেসের একাধিক নেতা এবং রাজ্যের ৪ মন্ত্রী সিধুর ইস্তফার দাবি তুলেছেন। সম্প্রতি সিধুর পাকিস্তান সফরকে কেন্দ্র করে বিস্ফোরক মন্তব্য এবং সফরকালে খালিস্তানপন্থী জঙ্গি নেতা গোপাল চাওলার সঙ্গে ছবি তোলা নিয়ে সমালোচিত হয়েছেন তিনি।

গত শুক্রবার সিধু বলেন, আমার ক্যাপ্টেন রাহুল গান্ধী তিনি আমাকে যেখানে যেতে বলেন আমি যাই। দলের হয়ে যেটা করতে বলেন করি। আর উনি পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিংয়েরও ক্যাপ্টেন। সিধু অবশ্য এদিন ইউ-‌টার্ন নিয়ে নিজের মন্তব্য অস্বীকার করে জানিয়েছেন, রাহুল গান্ধীর নির্দেশে তিনি পাকিস্তানে যাননি। পাক প্রধানমন্ত্রী ক্রিকেটার-‌বন্ধু ইমরান খানের ব্যক্তিগত আমন্ত্রণে গিয়েছিলেন।

পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিংকে উদ্দেশ্য করে সিধুর বক্তব্যের সমালোচনা করে রাজ্যের কংগ্রেসী মন্ত্রীসভার আর এক সদস্য রাজিন্দর সিং বলেছেন, অমরিন্দর সিংকে যদি সিধু ক্যাপ্টেন না মনে করেন তাহলে নৈতিকভাবে তাঁর মন্ত্রিসভা থেকে সরে দাঁড়ানো উচিত। রাহুল গান্ধী যে কাজ তাঁকে করতে বলবে সেই কাজই তাঁর করা উচিত। জলসম্পদ মন্ত্রী সুখবিন্দর সারকারিয়া বলেছেন, ক্যাপ্টেন অমরিন্দরের প্রতি আনুগত্য দেখাতে না পারলে সিধুর উচিত মন্ত্রিসভা থেকে সরে দাঁড়ানো।

এদিকে, সিধুর ইমেজ উদ্ধারে ময়দানে নেমেছেন স্ত্রী নভজ্যোত কৌর সিধু। তিনি বলেন, সংবাদ মাধ্যমে অর্ধ সত্য প্রচার করা হচ্ছে। ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিংকে পিতার চোখে দেখেন সিধু। তিনি কোনওভাবেই ওঁনাকে অপমান করেননি। পাঞ্জাবের বাইরে গিয়ে উনি রাহুল গান্ধীকে নিজের ক্যাপ্টেন বলেছেন। পাঞ্জাবে যেমন অমরিন্দর সিংজী আমাদের ক্যাপ্টেন। তেমনই দেশে আমাদের ক্যাপ্টেন রাহুল গান্ধী। উনি ভুল কিছু বলেননি যার জন্য ওনাকে পদত্যাগ করতে হবে।