Friday, May 24, 2024
আন্তর্জাতিক

পাকিস্তানে ফের মন্দির ভাঙচুর, পুড়িয়ে দেওয়া হল গীতা

ইসলামাবাদ: পাকিস্তানের সিন্ধ প্রদেশে হিন্দুদের একটি মন্দিরের উপর হামলা চালাল দুষ্কৃতীরা। মন্দিরের বিগ্রহ এবং ধর্মগ্রন্থ গীতা-সহ বেশ কিছু ধর্মীয় পুস্তক আগুনে পুড়িয়ে দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। এই ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক পদক্ষেপ করতে সিন্ধ সরকারকে বুধবার নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী। ইমরান খান বলেন, দোষীদের দ্রুত চিহ্নিত করে, তারা যাতে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি পায়, তা নিশ্চিত করতে হবে।

তবে মৌলবাদীদের পৃষ্ঠপোষক ইমরান সরকারের এই পদক্ষেপ লোক দেখানো বলেই মনে করছেন সে দেশের সংখ্যালঘু হিন্দুরা। গত সপ্তাহে সিন্ধ প্রদেশের খাইরপুর জেলার কুম্ব এলাকায় এই ঘটনা ঘটেছে। মন্দিরটি ভাঙচুর করার পর এলাকা থেকে পালায় দুষ্কৃতীরা।

ঘটনাটি জানার পর ইমরান টুইট করেন, কুম্বে যে ঘটনা ঘটেছে, তা কোরানের শিক্ষার মধ্যে পড়ে না। তাই সিন্ধ প্রশাসনকে অবিলম্বে ঘটনায় জড়িতদের চিহ্নিত করে গ্রেফতার করতে হবে। দুষ্কৃতীরা যাতে রেহাই না পায়, সে বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে প্রাদেশিক প্রশাসনকে।

পাকিস্তান হিন্দু পরিষদের উপদেষ্টা রাজেশকুমার হর্দাসানি বলেছেন, দেশের সাম্প্রদায়িক ঐক্য নষ্ট করতেই এই হামলা চালানো হয়েছে। এ ঘটনায় স্বাভাবিকভাবেই প্রশাসনের উপর বিশ্বাস হারাবে সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়।

প্রসঙ্গত, মুসলিম অধ্যুষিত পাকিস্তানে মাত্র ২ শতাংশ হিন্দু, যাদের বেশিরভাগই সিন্ধ প্রদেশে বাস করেন। আর এই সিন্দে হিন্দুরা প্রায়ই হয়রানির শিকার হন বলেও অভিযোগ শোনা যায়।