Friday, April 12, 2024
দেশ

‘সংবিধানের ধর্মনিরপেক্ষতার পরিপন্থী’, উত্তরপ্রদেশে মাদ্রাসা বন্ধের নির্দেশ আদালতের

কলকাতা ট্রিবিউন ডেস্ক: উত্তরপ্রদেশে ইসলামিক স্কুল বা মাদ্রাসাকে বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে আদালত। উত্তরপ্রদেশে মাদ্রাসা শিক্ষাকে অনুমোদন বা পরিচালনার জন্য একটি আইন করা হয় ২০০৪ সালে। কিন্তু শুক্রবারের রায়ে আদালত সেই আইন বাতিল ঘোষণা করেছে। রায়ে বলা হয়েছে, সাংবিধানিকভাবে ভারত ধর্মনিরপেক্ষ দেশ। এখানে মাদ্রাসা প্রচলিত থাকলে তা এই সংবিধানকে লঙ্ঘন করে। এই শিক্ষাকে বাতিল করে শিক্ষার্থীদেরকে প্রচলিত স্কুলে ভর্তি হওয়ার পরামর্শ দেয় আদালত। 

আদালতের এই রায়ের পরে উত্তরপ্রদেশ মাদ্রাসা শিক্ষাবোর্ডের প্রধান ইফতিখার আহমেদ জাভেদ বলেন, এলাহাবাদ হাইকোর্টের এ রায়ে ক্ষতিগ্রস্ত হবে ২৭ লাখ শিক্ষার্থী, ১০ হাজার শিক্ষক শিক্ষিকা এবং ২৫ হাজার মাদ্রাসা। এ রাজ্যের মোট ২৪ কোটি মানুষের মধ্যে এক পঞ্চমাংশ মুসলিম।

উত্তরপ্রদেশ বিজেপির মুখপাত্র রাকেশ ত্রিপাঠি বলেন, রাজ্য সরকার মাদ্রাসাবিরোধী নয়। মুসলিম শিক্ষার্থীদের শিক্ষার বিষয়ে সচেতন রাজ্য। আমরা বৈষম্যমূলক শিক্ষার বিরোধী। আমরা অবৈধ অর্থায়নের বিরোধী। আদালতের নির্দেশের পর সরকার পরবর্তী পদক্ষেপ নেবে।

গত অক্টোবরে উত্তরপ্রদেশ সরকার রাজ্যের ইসলামী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলিতে সমীক্ষা পরিচালনার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। মাদ্রাসাগুলিতে কোনও বিদেশী তহবিল আসছে কিনা, তা খতিয়ে দেখতে এক বিশেষ তদন্তকারী দল গঠন করা হয়েছিল। যোগী সরকারের সেই সিদ্ধান্তের কয়েক মাস পরই এই সিদ্ধান্ত জানাল এলাহাবাদ হাইকোর্ট। এতদিন পর্যন্ত সরকারের পক্ষ থেকে এই মাদ্রাসাগুলিকে আর্থিক সহায়তা দেওয়া হতো। এলাহাবাদ হাইকোর্টের এই রায়ের ফলে সমস্ত অনুদান বন্ধ হয়ে যাবে।

তবে কত তারিখের মধ্যে মাদ্রাসা বন্ধ করতে হবে, সে ব্যাপারে কোনও নির্দেশনা দেননি আদালত। তবে শ্রীঘ্রই মাদ্রাসা বন্ধের নির্দেশই এসেছে বলে জানা গেছে।