Friday, April 12, 2024
আন্তর্জাতিক

মসজিদে হামলার দাঁতভাঙা জবাব দেবে মিশর: ফাত্তাহ আল সিসি

বিগত কয়েক দশকের মধ্যে সবচেয়ে বড় সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়ে বদলা নেবার ঘোষণা দিয়েছেন মিশর। এ কাপুরুষোচিত হামলায় কমপক্ষে ২৩৫ জন মুসুল্লি নিহত হন। সাম্প্রতিককালে এটি দেশটির সবচেয়ে ভয়াবহ হামলার ঘটনা।

হামলার কয়েক ঘণ্টা পরেই টেলিভিশনে জাতীর উদ্দেশ্যে দেয়া এক ভাষণে হামলার বদলা নেবার শপথ করে প্রেসিডেন্ট ফাত্তাহ আল সিসি বলেন, সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে কায়রোর লড়াই থামিয়ে দিতেই জঙ্গিরা মসজিদে বোমা হামলা ও গুলি চালিয়েছে। তিনি আরো বলেন, ‘সেনা ও পুলিশ বাহিনী স্বল্প সময়ের মধ্যে অভিযান চালিয়ে আমাদের শহীদদের প্রতিশোধ নেবে এবং নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা ফিরিয়ে আনবে।’”

গত শুক্রবার উত্তর সিনাইয়ের রাজধানী আল-আরিশের প্রায় ৪০ কিলোমিটার পশ্চিমে রওদা মসজিদে জনাকীর্ণ এক মসজিদে জঙ্গিরা বোমা বিস্ফোরণ ঘটায়। এরপর ভীতসন্তস্ত্র মুসল্লীরা মসজিদ থেকে বের হয়ে এলে তাদের উপর গুলি চালায় জঙ্গিরা। এ ঘটনায় প্রায় ৩৩৫ জন নিহত হয়েছে। ১৩০ জন আহত হয়েছে এ ঘটনায়।

এক সেনা মুখপাত্র জানান, দুর্গম পথে চলতে সক্ষম- এমন চারটি বাহনে চড়ে হামলাকারীরা ওই মসজিদে আসে। জুমার নামাজ যখন শেষ হচ্ছে, তখন সেখানে বোমা বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। হামলার কয়েক ঘণ্টা পর মিশরের বিমান বাহিনী অভিযান চালিয়ে ওই হামলায় ব্যবহৃত গাড়ি এবং বিস্ফোরক মজুদ রাখা ‘সন্ত্রাসী’ অবস্থান গুড়িয়ে দেয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, হামলাকারীরা গাড়ি দিয়ে মসজিদের চারদিক ঘিরে ফেলে এবং বোমার বিস্ফোরণ ঘটায়। এতে আতংকিত হয়ে মুসল্লিরা পালানোর চেষ্টা করে।