Monday, June 24, 2024
আন্তর্জাতিক

মরা হাতির দাম কোটি টাকা!

কথায় বলে, ‘হাতি বাঁচলেও লাখ টাকা, মরলেও লাখ টাকা’! ফ্রান্সের লিঁও শহরে সে দাম কোটি ছাড়াল। সম্প্রতি একটি নিলামে পুরো অনুমান, হিসাব-নিকাশ ভেঙে দিয়ে একটি লোমশ ম্যামথের কঙ্কালের দাম উঠল প্রায় সাড়ে পাঁচ লাখ ইউরো। ভারতীয় মুদ্রায় যার পরিমাণ প্রায় ৩ কোটি ৮১ লক্ষ টাকা।

নিলাম আয়োজকদের কল্পনার বাইরে গিয়ে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ওই কঙ্কালটি কিনে নেয়। ওই সংস্থাটির ‘লোগো’ হচ্ছে ম্যামথ। সংস্থাটির সিইও জানিয়েছেন, প্রতীক হিসেবে দফতরের লবিতে হাতির কঙ্কালটিকে সাজিয়ে রাখতে চায় তারা।

দশ বছর আগে উত্তরপশ্চিম সাইবেরিয়ার একটি অঞ্চলে পাওয়া গিয়েছিল বিশালাকৃতি পুরুষ ম্যামথটির কঙ্কাল। ১০ ফুটেরও বেশি ছিল এর উচ্চতা। ওজন ছিল আনুমানিক ১৪০০ কেজি। পেয়েছিলেন এক শিকারি। নিজের বাড়িতেই কঙ্কালটিকে সংরক্ষণ করে রেখেছিলেন তিনি। পুরু বরফের নিচে চাপা পড়ে থাকায় কঙ্কালের ৮০ শতাংশই অবিকৃত ছিল। বাকিটা রজন দিয়ে জুড়ে ম্যামথের সম্পূর্ণ রূপ দেওয়া হয়েছে। কঙ্কালটি পরীক্ষা করে গবেষকরা দেখেছেন, ম্যামথটির দাঁত অতিমাত্রায় ক্ষয়ে গিয়েছিল। যা দেখে তাদের অনুমান, খাবারের অভাবেই হয়তো মৃত্যু হয়েছিল ম্যামথটির।

ম্যাঞ্চেস্টার জাদুঘরের পৃথিবীবিজ্ঞান বিভাগের কিউরেটর ডেভিড গেলসথ্রোপ জানান, জলবায়ু পরিবর্তনের জেরে যে গতিতে বরফ গলছে, বিশেষ করে সাইবেরিয়ায়, তাতে আরো বেশ কিছু ম্যামথের কঙ্কাল উদ্ধার হলো বলে। তার কথায়, শুধু কঙ্কাল নয়, ইতোমধ্যে লোম, চামড়া থেকে শুরু করে বিভিন্ন দেহাংশ, এমনকি ফেলে রাখা শেষ খাবারটুকুও পেয়েছি আমরা।

প্রসঙ্গত, ম্যামথদের বাস ছিল মূলত উত্তর আমেরিকা ও সাইবেরিয়ায়। ১০ হাজার বছর আগে পৃথিবী থেকে প্রায় নিশ্চিহ্ন হয়ে যায় এরা। মেরু সাগরের কিছু দ্বীপে তখনো বেঁচে ছিল এক দল ম্যামথ। তবে চার হাজার বছর আগে হারিয়ে যায় তারাও। বিলুপ্ত হয়ে যাওয়ার কারণ মূলত দুটি। প্রথমত প্রকৃতির ব্যাপক পরিবর্তন দ্বিতীয়ত মানুষ।