Monday, June 24, 2024
রাজ্য​

এবার তৃণমূলকে ‘সাপ-কুকুর’-এর সঙ্গে তুলনা করলেন দিলীপ ঘোষ

মেদিনীপুর: ফের রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসকে কুরুচিকর ভাষায় আক্রমণ করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এদিন মেদিনীপুরে এক সভায় তৃণমূলকে একেবারে সাপ-কুকুরের সঙ্গে তুলনা করলেন দিলীপবাবু। তাঁর অভিযোগ, তৃণমূল রাজ্যের কোথাও বিজেপিকে সভা করতে দিচ্ছে না। বিজেপির সভা, মিটিং, মিছিল, জমায়েত সবেতেই তৃণমূল পুলিশকে ব্যবহার করে বাধা দিচ্ছে। এমনকি গুন্ডাবাহিনীর সাহায্য নিয়ে বিজেপির ওপরে আক্রমণ করছে বলেও অভিযোগ করেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি।

দিলীপবাবু বলেন, ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনের পরই দিদিমনি টের পাবেন বিজেপির কত ক্ষমতা। তারপরে কতদিন সরকার চলে তা আমরা দেখে নেব। বিজেপিকে সভা করার অনুমতি দেওয়া হবে না মোটেই। কী জানি কেন এত ভয়? আপনারা জানেন সাপ ভয় পেলে কামড়ে দেয়। কুকুরও ভয় পেলে কামড়ে দেয়। আবার তৃণমূল কংগ্রেসও ভয় পেলে কামড়ে দেয়। ওঁরা বিজেপিকে ভয় পেয়েছে বলেও কটাক্ষ করেন দিলীপ ঘোষ।

প্রসঙ্গত, কয়েকদিন আগেই দিলীপ ঘোষ স্পষ্ট জানিয়ে দেন রাজ্যে যে রথযাত্রা হবে তা আটকানোর চেষ্টা করলে তাঁরাও ছেড়ে কথা বলবেন না। তিনি বলেছিলেন, মিঠুন চক্রবর্তীর সিনেমার সেই ডায়ালগ শুনেছেন, মারব এখানে লাশ পড়বে শ্মশানে। তাহলে আমি একটু ঘুরিয়ে আপনাকে বলে যাচ্ছি, মারব এখানে, লাশ পড়বে যেখানে–সেখানে।

রাজ্য সভাপতির আরও হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন, যদি এমন সময় আসে যে হাত তুলতে হবে, তাহলে হাত হাতুড়ি হয়ে যাবে। হাতুড়ি পড়লেই বুঝতে পারা যাবে। বিজেপি মারলে কাউকে হাসপাতালে যেতে হবে না। সোজা শ্মশানে নিয়ে যেতে হবে। যদি আপনাকে নমুনা দেখতে হয় তবে সময় দিন, আমরাও তৈরি আছি। উল্টোপাল্টা বকলেই হবে না। যে কুকুর ঘেউ ঘেউ করে সে কামড়ায় না, আর যে কুকুর কামড়ায় সে ঘেউ ঘেউ করে না। এই ঘেউ ঘেউ করা কুকুর, সময় এলে আপনাদের জবাব দেব।