Monday, June 24, 2024
Latestদেশ

পাঠ্যবই থেকে অত্যাচারী শাসক টিপু সুলতানের ইতিহাস মুছে ফেলছে কর্ণাটকের বিজেপি সরকার

বেঙ্গালুরু: দক্ষিণ ভারতের মহীশূরের রাজা টিপু সুলতান সম্বন্ধে যা যা লেখা আছে কর্ণাটকের স্কুলে ইতিহাসের পাঠ্য বইগুলোতে, তা সিলেবাস থেকে বাদ দেওয়ার কথা ভাবছে সে রাজ্যের ক্ষমতাসীন বিজেপি সরকার। মুখ্যমন্ত্রী বি এস ইয়েদুরাপ্পা জানিয়েছেন, টিপু জন্ম জয়ন্তী আগেই বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। স্কুল পাঠ্য বইতে যা রয়েছে টিপু সুলতানের সম্বন্ধে, সেগুলো সিলেবাস থেকে বাদ দেওয়ার কথা ভাবছি আমরা।

ইয়েদুরাপ্পা জানান, টিপু জয়ন্তী আর নয়। পাঠ্যক্রম থেকে টিপু সুলতানের ইতিহাস বাদ দেওয়া হবে। বিজেপির শাসিত কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্য, টিপু সুলতান স্বাধীনতা সংগ্রামী ছিলেন না। তাই তাঁকে গৌরবান্বিত করে কোনও অধ্যায় ইতিহাসের পাতার রাখার দরকারও নেই। বিজেপি এবং হিন্দু সংগঠনগুলির বক্তব্য, টিপু সুলতান হিন্দুদের হত্যাকারী। তাঁর জন্মজয়ন্তী পালন করা যাবে না।

বিজেপি এবং আরএসএসের মতে, টিপু সুলতান কুর্গ, মালাবার সহ নানা এলাকায় কয়েক লাখ হিন্দুকে হত্যা করেছিলেন এবং জোরপূর্বক ধর্মান্তরিত করেছিলেন। তবে এই প্রথম নয়, এর আগেও কর্ণাটকে সরকারিভাবে যে টিপু জন্মজয়ন্তী বন্ধের আবেদন করা হয় বিজেপির তরফে। যা নিয়ে চরম সংঘাত হয়েছিল বিজেপি-কংগ্রেসের মধ্যে। বিজেপি জানিয়েছিল, ক্ষমতায় এলে টিপুর জন্মজয়ন্তী পালন বন্ধ করে দেবে তাঁরা। ঠিক তেমনটাই করেছে। এবার পাঠ্যক্রম থেকে টিপু সুলতানের ইতিহাস বাদ দেওয়ার পালা।

ব্রিটিশদের সঙ্গে যুদ্ধে নিহত হওয়ার পরে টিপু সুলতানের ১২জন পুত্র এবং পরিবার পরিজন সবাইকে কলকাতায় পাঠিয়ে দেয় ব্রিটিশ সরকার। সেই থেকে কলকাতাতেই টিপুর পরিবারের বসবাস। ‘টিপু সুলতান মসজিদ’ যেমন এই কলকাতাতেই, তেমনই তার পুত্র আনোয়ার শাহ এবং পরিবারের আরও কয়েকজনের নামে রয়েছে কলকাতার বড় বড় কয়েকটি রাস্তার নাম।