Tuesday, May 21, 2024
দেশ

এক নজরে দেখে নিন কংগ্রেসের ইস্তেহারের প্রতিশ্রুতিগুলি

নয়াদিল্লি: ২০১৯ সালের লোকসভা ভোটের ইস্তেহারে ‘সম্পদ ও কল্যাণ’ এই দুই বিষয়ের উপর জোর দিয়েছে কংগ্রেস। ন্যায়, ন্যূনতম আয় সহায়ক যোজনা ছাড়াও বাড়তি কর্মসংস্থান ও পৃথক কৃষি বাজেট গঠন করার আশ্বাস দিয়েছেন রাহুল গান্ধী। কংগ্রেসের ইস্তেহারের নাম ‘হম নিভায়েঙ্গে’- এক নজরে দেখে নিন ইস্তেহারের মূল বিষয়গুলি–

১. কৃষিঋণ: শিল্পপতিরা ব্যাঙ্ক ঋণ নিয়ে দেশ ছাড়া হচ্ছেন। কিন্তু জেলের ঘানি টানছেন কৃষকরা। কৃষকরা অক্ষম হলে ঋণ শোধ করতে হবে না। এমনকি তা ফৌজদারি অপরাধ বলে গণ্য হবে না।

২. ন্যায়: কংগ্রেসের ‘ন্যায়’ (ন্যূনতম আয় যোজনা)-য় বছরে ৭২ হাজার টাকা দেওয়া হবে প্রত্যেক গরিব পরিবারকে।

৩. কর্মসংস্থান: ২০২০ সালের মধ্যে ২২ লাখ সরকারি চাকরি ও গ্রাম পঞ্চায়েতে ১০ লাখ কর্মসংস্থানের আশ্বাস দেওয়া হয়েছে ইস্তেহারে।

৪. ১৫০ দিনের কাজের প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে।

৫. রেলের মতোই কৃষকদের জন্য পৃথক বাজেট করা হবে।

৬. বেকারত্ব, কৃষক আত্মহত্যা এবং নিশ্চল অর্থনীতি দূর করাই হবে প্রথম লক্ষ্য। দেশের অর্থনীতিকে ত্বরান্বিত করতে ‘শক্-থেরাপির’ প্রয়োজন বলে দাবি করেন রাহুল গান্ধী।

৭. নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল: ক্ষমতায় এলে অবিলম্বে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল প্রত্যাহার করা হবে।

৮. জিএসটি: মোদীর গব্বর সিং ট্যাক্স (জিএসটি বা পণ্য ও পরিষেবা কর)-র ৫টা ধাপ তুলে একটিতে করা হবে। অর্থাৎ জিএসটি-র একটিই স্তর থাকবে, যেখানে ন্যূনতম কর দিতে হবে জনগণকে।

৯. হিংসামূলক অপরাধ রুখতে ব্যবস্থা: এনডিএ সরকারের আমলে গণপিটুনি সহ অন্যান্য হিংসামূলক অপরাধ ঘটেছে, এই ধরনের ঘটনা রুখতে সংসদে বিশেষ আইন আনা হবে।

১০. শিক্ষা: শিক্ষা খাতে ৬ শতাংশ জিএসটি করা হবে।