Tuesday, June 18, 2024
দেশ

‘বিলুপ্তির পথে কংগ্রেস, অথচ নিজেদের কথা না ভেবে বিজেপির চিন্তা করছে’, খোঁচা মোদীর

নয়াদিল্লি: ১৯ জুলাই, সোমবার থেকে শুরু হয়েছে সংসদের বাদল অধিবেশন। চলবে ১৩ আগস্ট পর্যন্ত। এই অধিবেশনে কেন্দ্রীয় সরকার অন্তত ১৭টি গুরুত্বপূর্ণ নয়া বিল পেশ করতে মরিয়া। প্রথম দিন বিরোধীরা সংসদে তুমুল হট্টগোল করে, যার ফলে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi) নতুন মন্ত্রীদের পরিচয় পর্যন্ত করিয়ে দিতে পারেননি। দ্বিতীয় দিন প্রধানমন্ত্রী কংগ্রেসকে বিঁধলেন।

কংগ্রেসকে একহাত করে নিয়ে নরেন্দ্র মোদী বলেন, করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের আশঙ্কার কথা মাথায় রেখে গ্রাউন্ড লেভেলে বেশী করে কাজ করতে নেতা-মন্ত্রীদের। সংসদে বিরোধীদের তুমুল হট্টগোল প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, করোনার জেরে বর্তমানে গোটা মানবজাতি সংকটের সম্মুখীন, কঠিন এই পরিস্থিতিতেও বিরোধীদের এহেন মনোভাব সত্যি দুর্ভাগ্যজনক।

এরপরই কংগ্রেসকে খোঁচা দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশের বিভিন্ন রাজ্যে বিলুপ্তির পথে কংগ্রেস, কিন্তু তাঁরা নিজেদের চিন্তা না করে বিজেপির কথা ভাবছে। মোদীর দাবি, বিরোধীরা হতাশ, তাই তাঁরা আলোচনা করতে চাইছে না।

প্রধানমন্ত্রীর অভিযোগ, কংগ্রেস প্রথম থেকেই অভিযোগের রাজনীতি করে আসছে। দেশের বেশীরভাগ রাজ্যেই বিলুপ্তির পথে কংগ্রেস, সেজন্যেই আলোচনার বদলে হট্টগোল করে ওরা। অসম, কেরল, পশ্চিমবঙ্গ-সহ দেশের অনেক রাজ্যে হেরে গিয়েছে কংগ্রেস, তাও ঘুম ভাঙছে না ওদের। ওরা নিজেদের চিন্তা না করে আমাদের কথা ভাবছে।

এদিকে, করোনার দ্বিতীয় ঢেউ নিয়ন্ত্রণে কেন্দ্রের ব্যর্থতা, কৃষক আন্দোলন এবং জ্বালানির দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে সংসদে তুমুল হট্টগোল করে বিরোধীরা।

উল্লেখ্য, সংসদের বাদল অধিবেশনের আগে প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা করেন, তিনি চান সংসদে অধিক আর সার্থক আলোচনা হোক। বিরোধীদের আলোচনায় অংশ নেওয়ার আহ্বান জানান তিনি। কিন্তু বাস্তবে অধিবেশনের প্রথম দু’দিন ভিন্ন চিত্র দেখা গেল।