Sunday, June 23, 2024
আন্তর্জাতিক

মালয়েশিয়ার আকাশসীমা লঙ্ঘন করলো চিন, উত্তেজনা তুঙ্গে

কুয়ালালামপুর: আগ্রাসী ভূমিকার জন্য গোটা বিশ্বে চিনের বিরুদ্ধে দুর্নাম আছে। গোটা বিশ্ব যখন করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করছে চিন তখন আগ্রাসন চালাতে ব্যস্ত। এবার মালয়েশিয়ার আকাশসীমা লঙ্ঘন করলো চিন। অভিযোগ, ১৬টি চিনা যুদ্ধবিমান মালয়েশিয়ার সারাওয়াক রাজ্যের জলসীমার ওপর দিয়ে উড়ে গেছে। দক্ষিণ চিন সাগরের এই অঞ্চলকে নিজেদের বলে দাবি করে মালয়েশিয়া। এ ঘটনায় চিনা রাষ্ট্রদূতকে তলব করা হয়েছে।

মালয়েশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এই ঘটনাকে ‘জাতীয় সার্বভৌমত্বের জন্য গুরুতর হুমকি’ হিসেবে উল্লেখ করেছে। অন্যদিকে চিন বলছে, আন্তর্জাতিক আইন মেনেই আকাশপথে মহড়া চালিয়েছে তারা। এই ঘটনায় দু’দেশের মধ্যে চাপা উত্তেজনা বিরাজ করেছে।

মালয়েশিয়ার বিমানবাহিনী জানিয়েছে, চিনের যুদ্ধবিমানগুলো ‘কৌশলগতভাবে’ আকাশের ২৭ হাজার ফুট ওপর দিয়ে এবং সারাওয়াক রাজ্যের ৬০ নটিক্যাল মাইলের ভেতর দিয়ে উড়ে গেছে। দক্ষিণ চিন ‍সাগরে ‘সন্দেহজনক’ গতিবিধি লক্ষ্য করার পর সেখানে কি ঘটছে তা ‘স্বচক্ষে পর্যবেক্ষণ করতে’ মালয়েশিয়ার যুদ্ধবিমানগুলো লাবুয়ান বিমান ঘাঁটি থেকে সেখানে উড়ে যায়।

মালয়েশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, চিনের বিমানগুলো মালয়েশিয়ার সমুদ্র সীমায় প্রবেশ করেছিল। এ বিষয়ে বেইজিংয়ের কাছে একটি অভিযোগপত্র দেওয়া হবে। কেন মালয়েশিয়ার আকাশসীমা ও সার্বভৌমত্ব লঙ্ঘন করা হয়েছে, চিনা রাষ্ট্রদূতের কাছে এর ব্যাখ্যা চাওয়া হবে।

দক্ষিণ চিন সাগরে প্রায় ১৩ লাখ বর্গমাইল অঞ্চল নিজেদের বলে দাবি করে চিন। ২০১৪ সাল থেকে ওই অঞ্চলে কৃত্রিম দ্বীপ তৈরি করে সেগুলোকে শক্তিশালী মিসাইলসহ ও যুদ্ধাস্ত্র ব্যবহারের জন্য উপযোগী করেছে তারা। চিনের দাবি করা ওই অঞ্চলে ফিলিপাইন, ভিয়েতনাম, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, ব্রুনেই ও তাইওয়ানসহ আরও অনেক দেশের দাবি রয়েছে।