Saturday, June 15, 2024
দেশ

লাদাখে সংঘর্ষে চিনা কম্যান্ডিং অফিসারের মৃত্যু হয়েছে, জানাল চিন

বেইজিং: লাদাখ সীমান্তে সংঘর্ষের পর উত্তেজনা বিরাজ করছে ভারত ও চিনের মধ্যে। উত্তেজনা প্রমশনে সোমবার দ্বিপাক্ষিক আলোচনায় বসে ভারত ও চিন। এদিন দ্বিপাক্ষিক আলোচনার টেবিলে বেজিং জানাল, ১৫ জুন রাতে লাদাখে গালওয়ান উপত্যকায় সংঘাতে তাদের কম্যান্ডিং অফিসার-সহ কয়েকজন সেনার মৃত্যু হয়েছে।

উল্লেখ্য, গালওয়ান উপত্যকায় চিন ও ভারতের সেনাবাহিনীর মধ্যে তীব্র সংঘর্ষে ভারতের ১ জন সেনা অফিসার-সহ ২০ জন সেনা জওয়ান শহিদ হয়েছেন। এছাড়া আরও ৭৬ জন ভারতীয় সেনা আহত হন। কিন্তু চিন তাদের হতাহতের সংখ্যা প্রকাশ করেনি। সোমবার চিনের চুশুলের মল্ডোতে ভারত ও চিনা বাহিনীর লেফটেন্যান্ট জেনারেল স্তরে আলোচনা শুরু হয়েছে। সেই আলোচনায় চিন স্বীকার করল তাদের এক সেনা অফিসার-সহ কয়েকজন সেনার মৃত্যু হয়েছে।

গত ৬ জুন ভারত ও চিনের লেফটেন্যান্ট জেনারেল স্তরের বৈঠকে স্থির হয়েছিল, উত্তেজনা কমাতে দু’পক্ষেরই সেনা মুখোমুখি অবস্থান থেকে সরে যাবে। তবে গালওয়ানের পেট্রোলিং পয়েন্ট ১৪-তে চিনা সেনা সেই প্রতিশ্রুতি পালন করেনি। ১৫ জুন রাতে এলাকা পরিদর্শনে গিয়ে বিষয়টি নিয়ে আপত্তি জানালে চিনা বাহিনীর হামলায় শহিদ হন কর্নেল বি সন্তোষ বাবু-সহ ২০ জন ভারতীয় সেনা। এছাড়া আহত হন অন্তত ৭৬ জন ভারতীয় সেনা।

সংঘর্ষের পর নয়াদিল্লি তরফে দাবি করা হয়েছিল, চিনের অন্তত ৪৫ জন সেনা নিহত-আহত হয়েছেন। কিন্তু তা চিন সরকার বা চিনের কোনও সংবাদপত্র হতাহতের কথা স্বীকার করেনি। এমনকি চিনের সরকারি মুখপত্র গ্লোবাল টাইমসও এই খবর নামমাত্র প্রকাশ করে দায় এড়িয়ে গিয়েছিল। তবে গালওয়ানে সংঘর্ষের ঘটনার পর এই প্রথম চিন তাদের সেনার মৃত্যুর কথা মেনে নিল।