Tuesday, April 23, 2024
Latestদেশ

লোকসভায় বাল্যবিবাহ নিষেধাজ্ঞা সংশোধনী বিল পেশ করলেন স্মৃতি ইরানি

কলকাতা ট্রিবিউন ডেস্ক: কেন্দ্রীয় নারী ও শিশু উন্নয়ন মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি মঙ্গলবার লোকসভায় বাল্য বিবাহ নিষেধাজ্ঞা (সংশোধনী) বিল ২০২১ পেশ করেছেন। এই বিলে মেয়েদের বিয়ের বয়স ১৮ বছর থেকে বাড়িয়ে ২১ করার কথা বলা হয়েছে। স্মৃতি ইরানি বলেন, বিলটি ভারতীয় খ্রিস্টান বিবাহ আইন ১৮৭২, পার্সি বিবাহ এবং বিবাহবিচ্ছেদ আইন ১৯৩৬, মুসলিম বিবাহ আইন ১৯৩৭, বিশেষ বিবাহ আইন ১৯৫৪, হিন্দু বিবাহ আইন ১৯৫৫, বিদেশী বিবাহ আইন ১৯৬৯ এর বিধানগুলিকে সংশোধন করবে।

বিরোধীরা আপত্তি তোলেন যে বিলটি স্বল্প নোটিশে উত্থাপন করা হয়েছে। কংগ্রেস সাংসদ অধীর রঞ্জন চৌধুরী বলেছেন, বিষয়টি শুধুমাত্র সম্পূরক তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে এবং সরকার যথাযথ পরামর্শ ছাড়াই তাড়াহুড়ো করে বিলটি উত্থাপন করেছে। তিনি বিলটি স্থায়ী কমিটিতে পাঠানোর দাবি জানান। তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায় এবং আরএসপি সাংসদ এনকে প্রেমচন্দ্রনও একই আপত্তি জানিয়েছেন।

ইন্ডিয়ান ইউনিয়ন মুসলিম লিগের সাংসদ ইটি মুহাম্মদ বাশির বলেছেন যে বিলটি “অবাঞ্ছিত, অসাংবিধানিক এবং অনুচ্ছেদ 25 এর লঙ্ঘন”। তিনি বলেন, বিলটি “ব্যক্তিগত আইনের উপর আক্রমণ”।

AIMIM সাংসদ আসাদউদ্দিন ওয়াইসি বলেছেন, বিলটি ১৯ ধারার লঙ্ঘন। যদি কেউ ১৮ বছর বয়সে ভোট দিতে পারে তবে কেন একজন ব্যক্তি বিয়ে করতে পারবেন না, তিনি প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। পকসো আইনের অধীনে যৌনতার জন্য সম্মতির বয়স ১৮ বছর, এবং বিয়ের বয়স বাড়ানো অযৌক্তিক।

যদিও বিরোধীদের সেইসব দাবি ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছেন স্মৃতি ইরানি। তিনি বলেন, ‘আমরা গণতান্ত্রিক দেশে বাস করি। বিয়ের ক্ষেত্রে পুরুষ ও মহিলাদের সমান অধিকার প্রদানেও আমাদের ৭৫ বছর দেরি হয়েছে। এই সংশোধনীর মাধ্যমে প্রথমবারের মতো নারী-পুরুষ সমতা নিশ্চিত হবে। মেযেদের বিয়ের ন্যূনতম বয়স ২১ বছর করা হবে।’