Tuesday, May 21, 2024
রাজ্য​

শনিবার রাজ্যে আসছেন অমিত শাহ

নয়াদিল্লি: রথাযাত্রা নিয়ে এবার সরাসরি রাজ্য সরকারের সঙ্গে সংঘাতে জড়ালো বিজেপি। দলের সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহের চ্যালেঞ্জ, রাজ্যের তিন জায়গায় হবে রথযাত্রা। রাজ্য সরকার পারলে আটকাক। কেউ ঠেকাতে পারবে না। কোচবিহারে রথযাত্রা বাতিল নয়, স্থগিত করা হয়েছে। অমিত শাহের কথায়, আমি তিনটি রথযাত্রার সূচনা করব। শনিবার রাজ্যে আসছেন অমিত শাহ।

শুক্রবার দিল্লিতে সাংবাদিক সম্মেলনে অমিত শাহ জানান, আদালতের অনুমতি নিয়ে রথযাত্রা পশ্চিমবঙ্গে হবেই। বার বার আবেদন করা সত্বেও পশ্চিমবঙ্গ প্রশাসন রথযাত্রার অনুমতি দেয়নি। রথযাত্রা হলে পশ্চিমবঙ্গে পরিবর্তনের জোয়ার উঠবে। সেই ভয়ে রথের অনুমতি দিচ্ছে না মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। তবে বিজেপি দমে যাওয়ার পাত্র নয়। রথযাত্রা হবেই। দরকার হলে সুপ্রিম কোর্টে যাব। পশ্চিমবঙ্গের মানুষ পরিবর্তনের জন্য তৈরি হয়ে রয়েছেন। রথ আটকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জনতাকে সামলাতে পারবেন না। ২০১৯ সালের লোকসভা ভোটে পশ্চিমবঙ্গে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবে বিজেপি।

অমিত শাহ বলেন, বিজেপি রথযাত্রার পর কোথায়, কবে সাম্প্রদায়িক সংঘর্ষ হয়েছে? বরং পশ্চিমবঙ্গে সাম্প্রদায়িক সংঘর্ষ করিয়েছে তৃণমূল। সরকার তো বটেই প্রশাসনও একটি নির্দিষ্ট সম্প্রদায়ের তোষণে ব্যস্ত। যা এক কথায় ভয়াবহ। মমতা সরকারের সমালোচনা করে অমিত শাহ বলেন, পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূল কুশাসন চালাচ্ছে। ৭ বছর ধরে কুশাসন চলছে বাংলায়। পঞ্চায়েতে হিংসায় বাম জমানাকেও ছাপিয়ে গিয়েছে। পঞ্চায়েতে ফল দেখে ভীত তৃণমূল কংগ্রেস।