Friday, June 14, 2024
রাজ্য​

বারুইপুরের ছেলের কেন্দ্রীয় স্বীকৃতি, ICHR স্টাডি কাম ট্রাভেল গ্র‍্যান্ট পেল সৌমক

নিজস্ব সংবাদদাতা, বারুইপুর: দক্ষিণ চব্বিশ পরগণার এক বর্ধিষ্ণু ঐতিহাসিক জনপদ বারুইপুর। সেই বারুইপুরেরই নাম উজ্জ্বল করল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাউথ অ‍্যান্ড সাউথ- ইষ্ট এশিয়ান স্টাডিজ ডিপার্টমেন্টের ছাত্র সৌমক পোদ্দার। পেশায় গবেষক। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাউথ অ‍্যান্ড সাউথ- ইষ্ট এশিয়ান স্টাডিজে গবেষণারত। 

তাঁর পি এইচ ডি গবেষণাকার্যের তত্ত্বাবধায়ক, কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়েরই প্রাক্তন রেজিষ্ট্রার, খ‍্যাতনামা অধ‍্যাপক ড. রাজাগোপাল ধর চক্রবর্তী। বহুদিন ধরে তার তদারকিতেই গবেষণাকার্য পরিচালনা করছেন সৌমক শ‍্যামাপ্রসাদ-আশুতোষ, বৌদ্ধধর্ম ও দক্ষিণ- পূর্ব এশিয়া চর্চা বিষয়ে। এবার সেই পরিশ্রমের ফলশ্রুতিতেই মিলল কেন্দ্রীয় স্বীকৃতি। ভারত সরকারের কেন্দ্রীয় শিক্ষা মন্ত্রকের অধীন স্বশাসিত সংস্থা ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ হিস্টোরিকাল রিসার্চ, সংক্ষেপে আই সি এইচ আর সৌমকের পিএইচডি গবেষণা প্রস্তাবনা পত্রকে সারা ভারতবর্ষের মধ‍্যে অন‍্যতম স্টাডি কাম ট্রাভেল গ্রান্ট অনুমোদন দিয়েছেন। যার অর্থমূল‍্য বিয়াল্লিশ হাজার টাকা। 

এ বিষয়ে সৌমককে জিজ্ঞাসা করা হলে, তিনি বলেন, “এই স্বীকৃতি আমার পক্ষে গর্বের। বিভাগের পক্ষে তো গর্বের বটেই। এখন গবেষণাকার্যটা সম্পূর্ণ করাই আমার মূল লক্ষ‍্য। বিভাগের সকলেই অত‍্যন্ত খুশী এই প্রাপ্তিতে। পরিবারও আনন্দিত। বিভাগীয় প্রধান রাজাগোপাল স‍্যারও ভীষণ আনন্দিত।”

প্রসঙ্গত, সৌমক ইতিপূর্বে আই সি এইচ আর স্পনসর্ড ইতিহাস প্রকল্পে গবেষণা সহকারীর ভূমিকা পালন করেছেন। আই সি এস এস আর স্পনসর্ড সহ বিভিন্ন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক সেমিনারে গবেষণাপ্রবন্ধ উপস্থাপন করেছেন। লিখেছেন বিভিন্ন পত্র- পত্রিকায়ও।