Friday, June 14, 2024
আন্তর্জাতিক

বাংলাদেশের বরিশালের আগৈলঝাড়ায় ৩টি প্রতিমা ভাংচুর

ঢাকা, ২১ ফেব্রুয়ারি: বাংলাদেশে সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষদের মন্দির এবং বাড়িতে হামলার ঘটনা ঘটেই চলেছে। এবার বরিশালের আগৈলঝাড়ায় ৩টি প্রতিমা ভাংচুর করেছে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা। ঘটনাটি ঘটেছে গত সোমবার গভীর রাতে।

স্থানীয়সূত্রে সূত্রে জানা যায়, বরিশাল উপজেলার বাগধা ইউনিয়নের জয়রামপট্টি গ্রামের সার্বজনীন রাধাগোবিন্দ ও গনেশ পাগল
সেবাশ্রম মন্দিরে ৫টি প্রতিমা স্থাপন করে স্থানীয়রা পূজা করে আসছিল। গতকাল সোমবার রাতে স্থানীয় ভক্তরা ধর্মীয় অনুষ্ঠান শেষে মন্দিরে তালা লাগিয়ে বাড়ি চলে যায়। ওই দিন গভীর রাতে অজ্ঞাতনামা নামধারী দুবৃর্ত্তরা বাঁশের লাঠি দিয়ে জয়রামপট্টি সার্বজনীন রাধাগোবিন্দ মন্দির ও গনেশ পাগল সেবাশ্রমের গৌর ও নিতাই এবং রাধাগোবিন্দ মন্দিরের ১টি প্রতিমা ভাংচুর করে অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা। এসময় রাধাগোবিন্দ মূর্তিরও আংশিক ভাংচুর করা হয়েছে। গত মঙ্গলবার সকালে মন্দিরে স্থানীয় পূজারী উষা রানী বল্লভ পূজা দিতে গিয়ে মন্দিরে মূর্তি ভাংচুর দেখে সবাইকে জানান।

খবর পেয়ে আগৈলঝাড়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আ. রাজ্জাক মোল্লা, জেলা আওয়ামীলীগ নেতা মুক্তিযোদ্ধা আ. রইচ সেরনিয়াবাত ও উপজেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক অনিমেষ মন্ডল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। আ. রাজ্জাক জানান, অজ্ঞাত ব্যক্তিদের আসামি করে মামলা করা হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তারের জন্য বিভিন্ন স্থানে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

প্রসঙ্গত, হাসিনা জমানায় বাংলাদেশে হিন্দুদের ওপর আক্রমণের ঘটনা নতুন নয়। বিগত বছরগুলিতেও হিন্দু সম্প্রদায়ের উপর হত্যা-জখম-নির্যাতন, মন্দির ভাঙচুর, মন্দিরের পুরোহিত হত্যা, লুটপাট, বাড়িতে হামলা ও অগ্নিসংযোগের মতো ঘটনা অব্যাহত ছিল পদ্মাপারের দেশের। তবে যে ভাবে হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষের ধর্মাচারোণের ওপর আঘাত দিন দিন বাড়ছে তাতে চিন্তায় দেশটির প্রশাসন। তবে এর আগেও বাংলাদেশের বিভিন্ন জায়গায় হিন্দু বিগ্রহ ভাঙার ঘটনা খবরের শিরোনামে এসেছে। প্রতিক্ষেত্রেই সরকার উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানালেও কাজের কাজ হয়নি।