টেক্সাসে গির্জায় বন্দুকধারীর হামলায় নিহত ২৬

টেক্সাস: আমেরিকায় ফের হানা বন্দুকবাজের। রবিবার সকালে টেক্সাসের একটি গির্জায় বন্দুকধারীর হামলায় কমপক্ষে ২৬ জন নিহত হয়েছে, যার মধ্যে ২ বছরের এক শিশুও রয়েছে। আহতের সংখ্যা অন্তত ২৫ জন।

রবিবার স্থানীয় সময় বেলা সাড়ে ১১টার দিকে টেক্সাসের সেন্ট অ্যান্টনিও শহরের দক্ষিণ-পূর্বে সাদারল্যান্ড স্প্রিংস অঞ্চলে  ফার্স্ট ব্যাপটিস্ট চার্চে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীর বিবরণ অনুযায়ী, গুলিবৃষ্টিতে ঘটনাস্থলেই ২৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। গুলিতে জখম হয়েছে দু’টি দুই বছরের শিশু-সহ ১৫ জন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো প্রায় ২৫ জন। টেক্সাসের ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়াবহ হামলার ঘটনা এটি।

টেক্সাসের ডিপার্টমেন্ট অব পাবলিক সেফটির আঞ্চলিক পরিচালক ফ্রিম্যান মার্টিন জানিয়েছেন, রবিবার ছুটির দিন বলে গির্জায় বেশ কিছু লোকজন ছিল। যাঁরা হতাহত হয়েছেন, তাঁদের মধ্যে ৫ থেকে ৭০ বছর বয়সী লোকজন রয়েছেন। আহতদের উদ্ধার করে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

হামলাকারীর বর্ণনা দিতে গিয়ে ফ্রিম্যান মার্টিন বলেন, সন্দেহভাজন ওই হামলাকারী একজন শ্বেতাঙ্গ তরুণ, তার বয়স হবে ২৫-এর মতো। তার পরনে কালো রঙের পোশাক ছিল। তার নাম ডেভিন প্যাট্রিক ক্যালি।

এদিকে ঘটনার পর জাপান থেকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এক টুইট বার্তা হতাহতদের জন্য শোক প্রকাশ করেছেন এবং জাপান থেকে পুরো বিষয়টি তদারকি করছেন বলে জানিয়েছেন। এক টুইটে বলেছেন, ‘ঈশ্বর নিশ্চয়ই সাদারল্যান্ড স্প্রিংসের মানুষের সহায়ক হবেন। ঘটনাস্থলে এফবিআই এবং আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা রয়েছেন। আমি জাপান থেকেই পরিস্থিতি সার্বক্ষণিক পর্যবেক্ষণ করছি।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, রবিবার প্রার্থনার সময় গির্জার ভিতরে অন্তত ৫০ জন উপস্থিতি ছিলেন। ঘটনার দায় স্বীকার করে এখনও পর্যন্ত কোনও সন্ত্রাসবাদী সংগঠন বিবৃতি দেয়নি।