Tuesday, June 18, 2024
কলকাতা

এখনও পর্যন্ত এবারের পঞ্চায়েত নির্বাচনে ভোটের দিনে বলি ১০

কলকাতা: এখনও পর্যন্ত এবারের পঞ্চায়েত ভোটে মৃত্যু হল অন্তত ১০ জনের। এর আগে মনোনয়ন পত্র জমা দেওয়াকে কেন্দ্র করে জেলায় জেলায় বিক্ষিপ্ত অশান্তির ছড়িয়ে পড়েছিল ৷ সেই অশান্তির আবহ বজায় রইল এবারের পঞ্চায়েত নির্বাচনের দিনও। সোমবার সকাল থেকেই উত্তপ্ত হয়ে উঠল রাজ্য রাজনীতি। চলল গুলি-বোমাবাজি। কোথাও বুথ দখলের অভিযোগ আবার কোথাও ছাপ্পা ভোটের অভিযোগ। রক্তাক্ত পঞ্চায়েত ভোটে এখনও পর্যন্ত শাসক এবং বিরোধী দল মিলিয়ে ১০ জনের মৃত্যুর খবর মিলেছে।

মুর্শিদাবাদের নওদায় নির্দল সমর্থককে গুলি খুনের অভিযোগ উঠল। আমতলার পাটকেবাড়িতে খুন করা হয়েছে তাকে। অভিযোগের তির তৃণমূলের বিরুদ্ধেই। নিহত তৃণমূল সমর্থকের নাম শায়েদ শেখ।

বেলডাঙার সুজাপুরে বিজেপি কর্মী খুন। বোমার আঘাতে খুন হয় ওই বিজেপি কর্মী। অভিযোগের তির তৃণমূলের বিরুদ্ধে। যদিও শাসক দল এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে।

নাকাশিপাড়ায় খুন করা হয় তৃণমূল কর্মীকে ৷ বোমার আঘাতে খুন তৃণমূল কর্মী ৷ অভিযোগ সিপিএমের বিরুদ্ধে। অপরদিকে, দক্ষিণ ২৪ পরগনার কুলতলির মেরিগঞ্জে টিএমসি এবং এসইউসি সমর্থকদের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। মৃত টিএমসি সমর্থকের নাম আরিফ আলি গাজি শান্তিপুর ৷ গুলি করে খুন করা হয়েছে তাকে। এমনটাই দাবি শাসকদের। অভিযোগের তির তৃণমূলের বিরুদ্ধে।

উত্তর ২৪ পরগনার আমডাঙায় সিপিএম কর্মী খুন। কুলতলিতে তৃণমূলকর্মী গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত, অভিযোগ এসইউসি-র দিকে। নদীয়ার শান্তিপুরে গণপিটুনিতে মৃত্যু এক দুষ্কৃতীর, নন্দীগ্রামে ২ সিপিএম কর্মীকে গুলি করে খুন, শান্তিপুরে বুথ দখল করতে গিয়ে গণপিটুনিতে মৃত এক এমএ পড়ুয়া।

প্রসঙ্গত, এবার সব পঞ্চায়েত এলাকায় আজ ভোট হচ্ছে না। ৩৪ শতাংশের কাছাকাছি আসনে কোনও বিরোধী দল প্রার্থীই দিতে পারেনি। বিরোধীদের অভিযোগ, শাসক দল তৃণমূলের সন্ত্রাসের কারণেই মনোনয়ন জমা দিতে পারেনি তারা, কিংবা চাপের জমা দিয়েও প্রত্যাহার করে নিতে বাধ্য করা হয়েছে। ওই ৩৪ শতাংশ আসনে ভোটের ফলাফল সংক্রান্ত গেজেট বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের উপরে স্থগিতাদেশ জারি করেছে সুপ্রিম কোর্ট। বাকি ৬৬ শতাংশ আসনে আজ ভোট নেওয়া হচ্ছে। তবে উত্তর থেকে দক্ষিণ বিভিন্ন জেলা থেকেই আসছে সংঘর্ষ, হামলা, বোমাবাজি, প্রাণহানির খবর।