হাঁটার ধরনই আপনার ব্যক্তিত্বের পরিচয়

শুধু পোশাক পড়া কিংবা কথা বলার ভঙ্গি নয়, একজনের হাঁটার ধরন দেখেও জানা যায়, তিনি কেমন ব্যক্তিত্বের অধিকারী। গবেষণা বলছে, হাঁটার ধরন বলে দেয় তার মানসিকতা এবং ব্যক্তিত্বের পরিচয়।

১) অনেকের মধ্যেই একটু পা টেনে আস্তে আস্তে হাঁটার অভ্যাস রয়েছে। এমন মানুষদের জীবনে প্রচুর চিন্তা রয়েছে। সবসময় অবসন্ন থাকেন এঁরা। নিজেদের দুঃশ্চিন্তায় ডুবে থাকেন। নিজেদের এই অবসাদের জীবন থেকে কিছুতেই বেরিয়ে আসতে পারেন না।

২) অনেকে আবার চিন্তা করতে করতে হাঁটেন। এরা  দিবাস্বপ্ন দেখতে ভালবাসেন। নিজের জগতে ডুবে থাকতে পছন্দ করেন। হাঁটতে হাঁটতে তারা চিন্তায় এতটাই মগ্ন থাকেন যে আশপাশের শব্দ বা কোন ঘটনাই তাদের তেমন স্পর্শ করে না। এটা বেশ বিপজ্জনক হতে পারে, দুর্ঘটনাও ঘটে যেতে পারে।

৩) কেউ কেউ হাঁটার সময় অতিমাত্রায় সতর্ক থাকেন। চারপাশে সজাগ দৃষ্টি থাকে তাদের। জীবনের ক্ষেত্রেও এরা সতর্কতা অবলম্বন করেন। নিজের প্রতিটা পদক্ষেপে নজর থাকে। যাতে হোঁচট না খেতে হয়।

৪) অনেকে হাঁটার সময় বেশ শক্তভাবে জোরে জোরে পা ফেলেন। নিজের শরীরের ওজনের জন্য নয়, তাদের স্বভাবের কারণেই তারা এভাবে হাঁটেন। এ ধরনের মানুষ শিশুসুলভ আচরণের হন।খুব অল্পতেই রেগে যান।

৫) কারও কারও হাঁটার সময় দুই পায়ের ব্যবধান বেশি থাকে। তারা বেশ বলিষ্ঠভাবেই হেঁটে এগিয়ে যান। এমন লোকরা বহুমুখী প্রতিভার অধিকারী হন। তারা দক্ষতার সঙ্গে কাজ করেন। এরা অন্যদের কাছেও একইরকম দক্ষতা আশা করেন।  তবে এঁদের জীবনের প্রতি প্রত্যাশা একটু বেশিই থাকে। এঁরা মনে করেন অন্যরাও তালে তাল মিলিয়ে হাঁটতে পারবেন।

৬) যারা ছন্দ মিলিয়ে হাঁটতে পছন্দ করেন তারা জীবনকে উপভোগ করতে ভালবাসেন। জীবনের যেকোন অবস্থায় তারা জীবনকে ভালবাসেন। তারা আস্তে আস্তে পা মিলিয়ে হেঁটে সঙ্গীর সঙ্গে কথা বলতে পছন্দ করেন। এটাকে হাঁটার আদর্শিক উপায়ও বলা হয়।