Monday, July 22, 2024
দেশ

জুনেই ১০-১২ কোটি ডোজ টিকা তৈরি করবে সিরাম ইনস্টিটিউট

পুণে: মারণ করোনাভাইরাসের প্রকোপ থেকে রেহাই পেতে গেলে চাই গণটিকাকরণ। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO) ইতিমধ্যেই জানিয়েছে, জনগোষ্ঠীর অন্তত ৭০ শতাংশর টিকাকরণ না করলে করোনা অতিমারী শেষ হবে না। তবে ভারতের মতো বিপুল জনসংখ্যার দেশে সবাইকে টিকাকরণ খুবই চাপের। ভ্যাকসিন স্বল্পতার জন্যে চিন্তায় কেন্দ্রীয় সরকার। কেন্দ্রকে কিছুটা স্বস্তি দিয়ে সিরাম ইনস্টিটিউট জানালো, জুন মাসেই ১০ থেকে ১২ কোটি কোভিশিল্ডের ডোজ তৈরি করবে তারা।

সিরাম ইনস্টিটিউটের তরফে প্রকাশ কুমার সিং জানিয়েছেন, মে মাসে দিনরাত পরিশ্রম করে ৬ থেকে ৭ কোটি কোভিশিল্ডের ডোজ উৎপাদন করেছে সংস্থা। তিনি জানান, শ্রীঘ্রই ভ্যাকসিনের সহজলভ্যতা বাড়ানো হবে। পাশাপাশি, করোনার ভ্যাকসিন ইস্যুতে দেশকে আত্মনির্ভরের বিষয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের এই পদক্ষেপকে স্বাগত জানান তিনি।

এদিকে, কেন্দ্রীয় সরকার সূত্রে খবর, জুলাইয়ের আগে ২০ থেকে ২৫ কোটি কোভিশিল্ডের ডোজ উৎপাদন করা হবে। আগস্ট-সেপ্টেম্বরের মধ্যে তৈরি করা হবে আরও ৩০ কোটি ডোজ। এমনটা হলে দেশে গণটিকাকরণের গতি আরও ত্বরান্তিত হবে।

এদিকে, বেসরকারি হাসপাতালগুলিকে সতর্ক করে নয়া গাইডলাইন প্রকাশ করল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক। কেন্দ্র জানিয়েছে, বেসরকারি হাসপাতালগুলি যেখানে সেখানে টিকাদান ক্যাম্প করতে পারবে না। পাশাপাশি, বলা হয়েছে, প্রবীণ নাগরিক ও বিশেষভাবে সক্ষমদের সুবিধার্তে তাঁরা বাড়ির কাছে ভ্যাকসিন নেওয়ার সুবিধা পাবেন।