Tuesday, June 18, 2024
রাজ্য​

শহিদ দিবসের অনুষ্ঠান চলাকালীন তৃণমূলের গোষ্ঠী সংঘর্ষ, নিহত ২ TMC সমর্থক

বসিরহাট: প্রতি বছরের মতো এবছরও ২১ জুলাই শহিদ দিবস পালন করল তৃণমূল। করোনা পরিস্থিতির জেরে ভার্চুয়াল অনুষ্ঠান মঞ্চে বক্তব্য রাখেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাতেও ঘটল বিপত্তি। মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্য শোনার সময় দলীর কোন্দলে জড়িয়ে পড়ে শাসকদলের দুই গোষ্ঠী। সংঘর্ষে নিহত হয়েছে এক বৃদ্ধা এবং এক তরুণ। মৃতরা হলেন- লক্ষ্মী বালা (৬২) এবং সন্ন্যাসী সরদার (২৮)।

এই সংঘর্ষের জেরে বোমাবাজিও করা হয় বলে অভিযোগ। ঘটনায় নিহত হয়েছেন ২ জন তৃণমূল কর্মী। অন্যদিকে, জখম হয়েছেন আরও ৫ জন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে এলাকায় মোতায়েন করা হয়েছে বিশাল পুলিশ বাহিনী। নামানো হয়েছে র‌্যাফ। ঘটনাটি ঘটেছে বসিরহাটের হাড়োয়া থানার মোহনপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের মোহনপুর গ্রামে।

গোটা রাজ্যের মতো মোহনপুর গ্রামেও শহিদ দিবস উপলক্ষে জায়ান্ট স্ক্রিনে মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্য শোনার ব্যবস্থা করা হয়েছিল। কিন্তু ভার্চুয়াল এই অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে অশান্তি ছড়ায় সেখানে। কথা কাটাকাটি থেকে হাতাহাতি শুরু করে দেয় দুই গোষ্ঠী। অভিযোগ, বোমাবাজিও করা হয়। গুলিও চলে। স্থানীয় বাড়ি-ঘর, দোকানে ভাঙচুর চালানো হয়।

অভিযোগ, অশান্তি চলাকালীন গুলিবিদ্ধ হন ৬২ বছরের লক্ষ্মীবালা দেবী। হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। ২৮ বছরের যুবক সন্ন্যাসী সরদারকেও বেধড়ক মারধর করা হয়। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তাঁর। জখম হওয়া ৫ তৃণমূল কর্মীকে হাসপাতালে (Haroa State General Hospital) ভর্তি করা হয়েছে। শহিদ দিবসে তৃণমূলের গোষ্ঠী সংঘর্ষে ২ জন নিহত হওয়ার ঘটনায় শোরগোল পড়ে গিয়েছে গোটা রাজ্যে। চারিদিকে নিন্দার ঝড় বইছে।

এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত ১৮ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। কিভাবে সংঘর্ষের সূত্রপাত তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।