Tuesday, June 18, 2024
দেশ

তৃতীয় বা চতুর্থ ফ্রন্ট মোদী সরকারের সামনে ধোপে টিকবে না: প্রশান্ত কিশোর

নয়াদিল্লি: একুশের বিধানসভা ভোটে জয়ের পরে তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কেন্দ্রের মোদী সরকারের বিরুদ্ধে প্রধান মুখ হিসেবে ধরা হচ্ছে। সেই জল্পনা বা সম্ভাবনা আরো দৃঢ় হয় ভোট কুশলী প্রশান্ত কিশোরের সংস্থা আইপ্যাকের সঙ্গে তৃণমূলের ২০২৬ সাল অবধি চুক্তিবদ্ধ হওয়ার পরে। তবে যুদ্ধে নামার আগেই মোদী সরকারের বিরুদ্ধে কার্যত হার মেনে নিলেন প্রশান্ত কিশোর।

সবাইকে অবাক করে দিয়ে প্রশান্ত কিশোর (Prashant Kishor) দাবি করলেন, কোনও তৃতীয় বা চতুর্থ ফ্রন্ট বিজেপিকে আটকাতে পারবে না। উল্লেখ্য, সম্প্রতি বর্ষিয়ান কংগ্রেস নেতা শরদ পাওয়ারের সঙ্গে সাক্ষাতের পর অ-কংগ্রেসি দলগুলির মহাজোট গঠনের জল্পনা তুঙ্গে ওঠে। শোনা গিয়েছিল, সোনিয়া গান্ধীকে হটিয়ে শরদ পাওয়ারকে কংগ্রেস প্রধান করা হবে এবং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে হবে অ-কংগ্রেসি জোট।

মাত্র ২ সপ্তাহের ব্যবধানে সর্বভারতীয় রাজনীতির অধুনা ‘চাণক্য’ প্রশান্ত কিশোর শরদ পাওয়ারের সঙ্গে জোড়া বৈঠক করেন। শরদ পাওয়ারের সঙ্গে বৈঠক প্রসঙ্গে পিকে বলেন, এর আগে একসঙ্গে দু’জনের কাজ করার সুযোগ হয়নি। একে অপরকে ভালো করে জানার জন্য এই বৈঠক। রাজনীতির খুঁটিনাটি, বিজেপির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে কি করা উচিত, কি উচিত নয়, তা নিয়ে আলোচনা হয়েছে ঠিকই। তবে তৃতীয় ফ্রন্ট গড়ার কোনও চিন্তা নেই। আমি এই ধরনের ফ্রন্টে বিশ্বাসী নই।

মঙ্গলবার পিকে বলেন, আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির বিরুদ্ধে সঙ্ঘবদ্ধ লড়াইয়ে কোনও বিরোধী জোটকে নেতৃত্ব দিচ্ছি না আমি। তাঁর কথায়, আমার মনে হয় না কোনও তৃতীয় বা চতুর্থ ফ্রন্ট বিজেপিকে চ্যালেঞ্জ জানাতে সক্ষম। পাশাপাশি, কংগ্রেসের তীব্র সমালোচনা করে তিনি বলেন, কংগ্রেসকে বুঝতে হবে ওদের কিছু একটা সমস্যা হচ্ছে এবং সেটার সমাধান সূত্র বের করতে হবে।