Tuesday, May 21, 2024
আন্তর্জাতিক

পশ্চিমবঙ্গ পেরিয়ে বাংলাদেশের হাটে ‘সবুজ সাথী’ সাইকেল; বিতর্ক তুঙ্গে

কলকাতা ট্রিবিউন ডেস্ক: বাংলাদেশের হাটে বিক্রি হচ্ছে স্কুল পড়ুয়াদের জন্য তৃণমূল সরকারের দেওয়া ‘সবুজ সাথী’র সাইকেল। নদিয়া এবং মুর্শিদাবাদ জেলার ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত লাগোয়া অঞ্চলেই মিলছে সবুজ সাথীর এইসমস্ত সাইকেলগুলো। কিন্তু কিভাবে সীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশে পৌঁছলো সবুজ সাথীর সাইকেল? তা নিয়ে বিতর্ক ছড়িয়েছে।

বাংলাদেশের হাটে সবুজ সাথীর সাইকেল বিক্রির ভিডিও রীতিমতো ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। যদিও ভিডিওর সত্যতা যদিও যাচাই করেনি কলকাতা ট্রিবিউন। 

ভাইরাল ভিডিওতে এক যুবক দেখা যাচ্ছে সবুজ সাথী সাইকেল বিক্রি করছেন। সাইকেলগুলোর কোনওটা কিছুদিন ব্যবহার, কোনওটা আবার একেবারেই নতুন। গাঢ় নীল রঙের সাইকেলগুলির সামনে বই রাখার জন্য কালো রঙের বাস্কেট রয়েছে। 

সবথেকে অবাক করার মতো বিষয় হলো- সাইকেলের সামনে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আঁকা লোগো এবং পিছনে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের বিশ্ব বাংলার স্টিকার।

প্রশ্ন উঠছে সীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশে সবুজ সাথী সাইকেল পৌঁছলো কিভাবে? 

মুর্শিদাবাদ জেলা লাগোয়া ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী রানিহাটি বাজার, চাঁপাই-নবাবগঞ্জ, বাথানপাড়া। নদিয়া জেলা লাগোয়া চারঘাট, রাজশাহী, খুলনা, পাবনা, গাংনি, চুয়াডাঙা, কুষ্টিয়া মেহেরপুর, জীবননগর সহ বিভিন্ন এলাকার হাটে দেদার বিক্রি হচ্ছে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের সবুজ সাথী প্রকল্পের সাইকেল। 

বিক্রেতারা জানাচ্ছেন, সবুজ সাথীর নতুন সাইকেলের দাম বাংলাদেশের বাজারে এখন ১৪ থেকে ১৫ হাজার টাকা। তারা বিক্রি করছেন ৭-৮ হাজার টাকায়। বাংলাদেশের বাজারে সবুজ সাথী সাইকেলের চাহিদাও ব্যাপক। 

প্রশ্ন উঠছে, সীমান্ত পেরিয়ে সাইকেল বাংলাদেশে পৌঁছতে পারলে সীমান্ত কতটা সুরক্ষিত? চোরাচালান, অনুপ্রবেশ কী আটকানো যাচ্ছে?