Sunday, May 26, 2024
রাজ্য​

বাবাকে ‘খুন’ করেছিল শাহজাহান শেখ, উচ্চ মাধ্যমিকে ৪৮৩ পেলেন পরিবার নিয়ে গ্রামছাড়া সন্দেশখালির প্রীতম

কলকাতা ট্রিবিউন ডেস্ক: ২০১৯ সালে বাবা প্রদীপ মণ্ডলকে খুন করা হয়েছিল। শাহজাহান শেখ এবং তার সাঙ্গপাঙ্গরা মিলে খুন করেছিলেন বলে অভিযোগ। পরিবার সহ গ্রামছাড়া হয়েছিলেন। বাবাকে হারিয়েও নিজের লক্ষ্যে অটল ছিলেন প্রীতম মণ্ডল। সন্দেশখালির সেই প্রীতম এবার উচ্চ মাধ্যমিকে ৪৮৩ নম্বর পেয়েছেন। প্রীতম জানিয়েছেন, তাঁর স্বপ্ন আইপিএস হওয়ার। 

নরেন্দ্রপুর রামকৃষ্ণ মিশন থেকে এবার উচ্চ মাধ্যমিক দেন প্রীতম। কলা বিভাগে পড়াশোনা করেছেন তিনি। ২০২১ সাল থেকে মা এবং ভাইকে নিয়ে গ্রামছাড়া। অভিযোগ, শাহজাহান এবং তার বাহিনীর হাতেই খুন হয়েছিলেন প্রীতমের বাবা প্রদীপ মণ্ডল। শাহজাহানের ভয়ে গ্রাম ছেড়েছিলেন প্রীতমরা। তারপর আর গ্রামে ফেরেননি তাঁরা।

প্রীতমের ভাই অনুভব এবার দ্বাদশ শ্রেণিতে উঠেছে। সন্দেশখালি ১-এ বসবাস করতো প্রীতমদের পরিবার। গ্রামে একটা দোকান, কিছু জমিজমা, মাছের ভেড়িও ছিল। আর্থিক স্বচ্ছলতা ছিল। প্রীতমদের ভালো স্কুলেও ভর্তি করিয়েছিলেন তাঁদের বাবা প্রদীপ। কিন্তু ২০১৯ সালে শাহজাহান এবং তার বাহিনীর হাতে খুন হয়েছিলেন প্রদীপ। অভিযোগ, প্রদীপকে গুলি করে খুন করা হয়।

প্রীতমের মা পদ্মা মণ্ডল জানিয়েছেন, ‘ছেলেদের ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে ২০২১ সালে তাঁরা সন্দেশখালি ছেড়েছেন। স্বামীর মৃত্যুর পর থেকে আর্থিক অনটনের মধ্যে সংসার চালাতে হচ্ছে। কিন্তু দুই ছেলের ভবিষ্যৎ গড়তে ঝুঁকি নিয়ে গ্রাম ছাড়তে হয়েছিল।’

পদ্মা মণ্ডল বলেন, “২০২১ সালে তাঁদের বাড়িতে হামলা চালায়। দোকান ভাঙচুর করা হয়। সব কিছু লুটপাট করে নেয়। এরপরেই আতঙ্কিত হয়ে সন্দেশখালি ছাড়েন তাঁরা।”