Thursday, April 25, 2024
আন্তর্জাতিক

রাষ্ট্রসংঘে গাজায় আক্রান্ত এক কিশোরীর ছবিকে কাশ্মীরি বানিয়ে জালিয়াতি পাকিস্তানের

নিউ ইয়র্ক, ২৪ সেপ্টেম্বর: সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতে ভারতের আক্রমণের মুখে পড়ে দিশেহারা পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূত। গাজায় ইজরায়েলের বিমান হানায় আহত এক কিশোরীর ভুল ছবি দেখিয়ে, সেটি ভারতের বলে দাবি করে বসলেন রাষ্ট্রসংঘে নিযুক্ত পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূত মালিহা লোধি। এরপর একাধিক ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের তরফে ছবিটির আসল পরিচয় জানানো হয়। স্থায়ী প্রতিনিধির ভুল ছবি দেখানোয় আন্তর্জাতিক মঞ্চে মুখ পুড়ল পাকিস্তানের।

রাষ্ট্রসংঘের সাধারণ সভায় ভারতের সামগ্রিক উন্নয়নের পক্ষে কথা বলেন বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ। পাশাপাশি সন্ত্রাস ইস্যুতে পাকিস্তানের আক্রমণ করেন। ভারতের এই আক্রমণের পালটা জবাব যে পাকিস্তান দেবে, তা প্রত্যাশিতই ছিল। আর সেটা করতে গিয়েই বড়সড় ভুল করে বসলেন রাষ্ট্রসংঘে পাকিস্তানের স্থায়ী প্রতিনিধি মালিহা লোধি। রাষ্ট্রসংঘে সাধারণ সভায় ভারতকে দক্ষিণ এশিয়ার সন্ত্রাসের ভূমি বলে পালটা তোপ দাগেন তিনি। তোলের কাশ্মীর প্রসঙ্গও। নিজের অভিযোগের সত্যতা প্রমাণ করতে আহত এক কিশোরীর ছবি দেখান মালিহা। আর তাতেই ঘটে বিপত্তি। যেথানে একটি রক্তাক্ত কিশোরীকে দেখা গেছে। ছবিটি দেখিয়ে তিনি বলেন, “এই হল ভারতীয় গণতন্ত্রের মুখ।”

এই ছবি প্রকাশিত হওয়ার পর একাধিক ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের তরফে জানানো হয়, রাষ্ট্রসংঘে পাকিস্তানের প্রতিনিধি যার ছবিটি দেখিয়েছেন, তার নাম রাওয়াইয়া আবু জুমা। ২০১৪ সালে গাজ়ায় ইজ়রায়েলের বিমান হানায় আহত হয়েছিল সে। অথচ পাকিস্তান দাবি করে, কাশ্মীরি হামলায় আহত হয়েছে ওই কিশোরী।

রাওয়াইয়া আবু জুমা