Saturday, June 15, 2024
দেশ

গালওয়ানে ভারতীয় জওয়ানরা খতম করেছে অন্তত ৪০-৫০ চিনা সেনাকে, আটক ১ পিএলএ কর্নেল

নয়াদিল্লি: গত ১৫ জুন রাতে পূর্ব লাদাখের গালওয়ান উপত্যকায় চিনা সেনার সঙ্গে সংঘর্ষে শহিদ হয়েছে ২০ ভারতীয় সেনা জওয়ান। তবে ভারতীয় সেনার মৃত্যুর খতিয়ান সারা বিশ্বের কাছে উঠে এলেও, চিনের তরফে কোনও বিবৃতি দেওয়া হয়নি। ভারতের তরফে দাবি, এই সংঘর্ষে চিনের অন্তত ৪৩ জন জওয়ান নিহত-আহত হয়েছে। যদিও এই বক্তব্য প্রেক্ষিতে কোনও মন্তব্য করেনি চিন। তবে এই বক্তব্যকে খণ্ডনও করেনি তারা।

ভারতের অভিযোগ, জোর করে ভারতীয় ভূখণ্ড দখলের চেষ্টা চালাচ্ছিল চিনা সেনারা। প্রতিরোধ গড়ে তোলে ভারতীয় সেনা। তারপরেই হামলা চালাতে শুরু করে চিনা জওয়ানরা। সোমবারের রাতের এই ঘটনায় ২০ জন জওয়ান শহিদ হন। অন্যদিকে, চিন হতাহতের কথা স্বীকার না করলেও সূত্রের খবর, ওই সংঘর্ষে মৃত্যু হয়েছে অন্তত ৪০-৫০ চিনা জওয়ানের। ওই রাতে টানা ৮ ঘণ্টা দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছিল বলে দাবি সূত্রের।

ওই রাতে নিরস্ত্র ভারতীয় জওয়ানদের উপরেও হামলা চালাতে দ্বিধা করেনি চিনা সেনারা। আগ্রাসী চিনা সেনা ঝাপিয়ে পড়ে ভারতীয় বাহিনীর উপর। সংঘর্ষে ২০ জন ভারতীয় সেনা জওয়ান শহিদ হন। পাশাপাশি, আরও ৭৬ জন ভারতীয় জওয়ান জখম হন।

এই সংঘর্ষের সময় চিনের এক কর্নেলকে আটক করে ভারতীয় সেনারা। ওই সূত্র জানিয়েছে, এই কর্নেলকে ছেড়ে দেওয়ার পরেই ভারতের ২ মেজর-সহ ১০ জন সেনা জওয়ানকে ছেড়ে দেয় চিন। সংঘর্ষের সময় ভারতীয় ১০ জওয়ানকে আটক করে রেখেছিল চিন।

এদিকে, গালওয়ান উপত্যকায় সংঘর্ষ প্রসঙ্গে শনিবার প্রাক্তন সেনাপ্রধান ও বর্তমান কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ভি কে সিংয়ের দাবি, গালওয়ানে সংঘর্ষে চিনের ৪০ জনেরও বেশি সেনা নিহত হয়েছেন। চিনের তরফে হতাহতের সংখ্যা নিয়ে কোনও মন্তব্য আসেনি। ফলে চিনের ৪০ জনের বেশি সেনার মৃত্যু খবর উড়িয়ে দেওয়া যায় না।